হরতাল না অবরোধ, দ্বিধায় ১৮ দল

19

image_80214

আসছে ৪, ৫ ও ৬ নভেম্বরে হরতাল নাকি অবরোধের ডাক দেওয়া হবে, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮-দলীয় জোট।
বিএনপির স্থায়ী কমিটি ওই তিনদিন অবরোধ পালনের কথা বললেও ১৮ দলের শরিকেরা হরতাল পালনের প্রস্তাব করেছেন।
বিএনপি ও জোটের শরিকদের ভিন্ন মতের কারণে ওই কর্মসূচি নির্ধারণের সকল ক্ষমতা বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়ার ওপর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
আজ বুধবার রাতে ঢাকার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে তাঁর সভাপতিত্বে ১৮-দলীয় জোটের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে তিনদিন অবরোধ পালনের বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্তের কথা শরিক দলের নেতাদের জানানো হয়। শরিকদের অনেকেই অবরোধে পরিবর্তে হরতাল দেওয়ার কথা বলেন।
এক শরিক দলের নেতা বলেন, যুক্তি হিসেবে এখনই অবেরোধ না দেওয়ার কথা বলা হয়। অবরোধ সফল করাও কঠিন বলে উল্লেখ করা হয়। এ ধরনের কর্মসূচি আরও পরে দেওয়ার ব্যাপারে মত দেওয়া হয়। ওই নেতা বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন বলেছেন, একই ধরনের কর্মসূচি বারবার দেওয়ার চেয়ে অবরোধ দেওয়া ভালো। হরতাল এখন আর মানুষ সেভাবে গ্রহণ করতে পারে না। কর্মসূচি দেওয়ার ক্ষেত্রে নতুনত্ব থাকা উচিত।
১৮-দলের শরিকেরা কর্মসূচি দিয়ে সব পরীক্ষা হরতালের আওতামুক্ত রাখার ব্যাপারেও মত দেন।
বৈঠকে ১৮ দলের শরিক এলডিপির সভাপতি অলি আহমদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, ইসলামী ঐক্যজোটের নেতা আবদুল লতিফ নেজামী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here