সাঈদীর রায় :ঢাকা ও চট্টগ্রামে নিরাপত্তা জোরদার

20

nasir gonojagoronজামায়াত নেতা মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মামলার আপিল বিভাগের রায়কে কেন্দ্র করে যে কোন ধরনের সহিংসতা ঠেকাতে দেশজুড়ে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ। এ ব্যাপারে পুলিশ সদর দফতর থেকে সারা দেশের জেলা পুলিশকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা তত্পরতা।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, নির্দেশনার শীর্ষে রয়েছে চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সাতক্ষীরা জেলার বেশ কয়েকটি এলাকা। তবে রাজধানী ঢাকাসহ প্রত্যেক জেলা শহরেও একই ধরনের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। পুলিশ সদর দফতরের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা নির্দেশনা প্রদানের কথা স্বীকার করে জানিয়েছেন, গত বৃহস্পতিবার মৌখিকভাবে সংশ্লিষ্ট জেলাসমূহের পুলিশ সুপারদের জানানো হয়েছে। তিনি বলেন, গত বছর ২৮ ফেব্রুয়ারি সাঈদীর মৃত্যুদণ্ডের রায়কে কেন্দ্র করে দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় একটি মহল গুজব ছড়িয়ে ব্যাপক সহিংসতা চালিয়েছিল। ওই সহিংসতায় ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগ, যানবাহন ভাংচুরসহ নিরীহ মানুষ হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। পূর্বের এধরনের অভিজ্ঞতাকে মাথায় রেখে এবার পুলিশ সদর দফতর থেকে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম অফিস: জামায়াত নেতা মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মামলায় আপিল বিভাগের রায়কে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামে ব্যাপক আকারে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছে পুলিশ। এ বিষয়ে গত বৃহস্পতিবার পুলিশ সদর দফতর থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়ে বার্তা পাঠানো হয়েছে। এ অনুযায়ী ইতিমধ্যে নগরী ও জেলার স্পর্শকাতর স্থানসমূহে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতভর নগরী ও জেলার জামায়াত-শিবির অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে অভিযান চালানো হয়। নগরীর সিটি গেট, নতুন ব্রিজ, অক্সিজেন মোড়সহ বিভিন্ন প্রবেশ মুখে যাত্রীবাহী যানবাহনে তল্লাশী করা হচ্ছে। পুলিশের এই সাঁড়াশি অভিযানে জামায়াত শিবিরের বিভিন্ন পর্যায়ের শীর্ষ নেতারা ইতিমধ্যে গা ঢাকা দিয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, গত বছর ২৮ ফেব্রুয়ারি সাঈদীর মৃত্যুদণ্ডের রায়কে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে এবং জামায়াত-শিবিরের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত সাতকানিয়া, লোহাগাড়া উপজেলায় ব্যাপক সহিংসতার ঘটনায় চারজন নিহত হয়।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) বনজ কুমার মজুমদার গতকাল ইত্তেফাককে বলেন, গত বৃহস্পতিবার পুলিশ সদর দপ্তর থেকে সিএমপির কাছে একটি নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here