ম্যাজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে ইলিশ লুটের অভিযোগ

16

বৈশাখ উপলক্ষে সংরক্ষণ করা ইলিশ মাছ লুটের অভিযোগ উঠেছে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে।

ঘটনা তদন্তে এক সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শুক্রবার সকালে তদন্তকারী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কংকন চাকমা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ সময় তিনি ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীদের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা জানান, গত ৬ এপ্রিল বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে কমলনগর উপজেলার মতিরহাট বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার কথা বলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা।

এ সময় তিনি বাজারের কোল্ড স্টোরেজের তালা ভেঙে ২০০ পিস ইলিশ মাছ সিএনজি অটোরিক্সাযোগে নিয়ে আসেন।

পহেলা বৈশাখে ভাল দাম পাওয়ার আশায় গত ফেব্রুয়ারি মাসে ওই মাছগুলো মজুদ করেন ১২ জন স্থানীয় ব্যবসায়ী। তাদের দাবি, লুট হওয়া মাছের বর্তমান বাজার দর প্রায় ৪ লাখ টাকা।

এ ঘটনায় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বৃহস্পতিবার হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী নামে এক ব্যবসায়ী জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত আবেদন করেন।

এ ব্যাপারে ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানার দাবি, তিনি ওই এলাকায় ঘুরতে গিয়ে মাছগুলো জব্দ করেন। পরে ৩টি এতিমখানায় মাছগুলো বিতরণ করা হয়েছে।

তবে লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান চৌধুরী ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সাংবাদিকদের জানান, কমলনগর উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার জন্য ওই ম্যাজিস্ট্রেট কোনো অনুমতি নেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here