মৌচাকে বোমা হামলা: পুলিশসহ আহত ৬, আটক ১

22

.koktelরাজধানীর মৌচাক মোড়ে বোমা হামলায় পুলিশসহ সাতজন আহত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুর্বৃত্তরা এ হামলা চালায়। আহত পুলিশের মধ্যে রয়েছেন—ট্রাফিক কনস্টেবল শহিদুল, কনস্টেবল আমিনুল, ইব্রাহীম ও কামরুল। শহিদুলের অবস্থা গুরুতর। ঘটনার পরই তাকে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া বোমার স্প্লিন্টারে এক রিকশাচালক ও এক মহিলা আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শর্টগানের শতাধিক গুলি ছোড়ে। পুলিশের গুলিতে এক নারী আহত হয়েছেন। পুলিশ ফরচুন টাওয়ারসহ আশপাশের কয়েকটি ভবনে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছে। বোমা হামলার ঘটনায় সোহাগ নামের এক সন্দেহভাজন তরুণকে আটক করা হয়েছে।

মৌচাক মার্কেটের সামনের ফুটপাতের বেশ কিছু দোকানি জানান—সন্ধ্যা ৬টার দিকে মার্কেটের সামনে ফুটওভার ব্রিজের নিচে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের ওপর পাশের একটি বহুতল ভবনের থেকে পর পর দুটি বোমা ছোড়া হয়। এতে কনস্টেবল শহিদুলের হাত-পাসহ শরীরের বেশির ভাগ অংশ ঝলসে যায়।

এ দিকে, বোমা হামলার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট, শর্টগানের গুলি ও টিয়ার সেল ছুড়তে থাকে। খবর পেয়ে রমনা জোনের পুলিশের উপ-কমিশনার সরদার মারুফ হাসান, রমনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমানসহ কয়েক প্লাটুন পুলিশ সেখানে ছুটে আসে। শর্টগানের গুলিতে ফরচুন টাওয়ারের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা তৃৃষা নামের এক তরুণী আহত হন। তাকে স্থানীয় সাফেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় মৌচাক-মালিবাগ-কাকরাইল-রাজারবাগ সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

রমনা জোনের উপ-কমিশনার সরদার মারুফ হাসান বলেন, ‘এ ঘটনা পরিকল্পিত এবং টার্গেট ছিল পুলিশ। দুর্বৃত্তরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। হামলাকারীদের চিহ্নিত করে আটক করা হবে। পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।’

রমনা থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, ‘আটককৃত সোহাগকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তিনি ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের ছাত্র এবং বাসা খিলগাঁও এলাকায় বলে দাবি করছেন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here