মেহেরপুরের ৪টি স্থানে অবরোধ ॥ কায়েম কাটার মোড়ে পুলিশ-অবরোধকারী গুলি ককটেল বিনিময়

16

newমেহেরপুর প্রতিনিধি:জনতার নিউজ

৭২ ঘন্টা অবরোধের দ্বিতীয় দিনে মেহেরপুরের বিভিন্ন সড়কের ৪টি স্থানে অবরোধ করেছেন ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা। অবরোধের শুরুতেই সকাল পৌনে আটটার দিকে মেহেরপুর-কাথুলী সড়কে পুলিশের সাথে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এসময় ২০/২৫টি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটিয়েছে অবরোধকারীরা। অবরোধকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষন করেছে। বর্তমানে অবরোধকারী ও পুলিশ মুখোমুখি অবস্থান করছে। এছাড়াও মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা সড়কের রাজনগর, মেহেরপুর-মুজিবনগর সড়কের বন্দর ও গোপালনগর মোড়ে অবরোধ করেছেন ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা। এসময় টায়ারে আগুন দিয়ে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ করেছেন নেতাকর্মীরা।

অন্য এক খবরে জানা যায় ঃ

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার হোগলবাড়ীয়া এলাকায় মাথাভাঙ্গা নদীর তীরবর্তী মরিচ ক্ষেত থেকে নিয়ামত আলী (৪০) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিয়ামত আলী কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিশাকুন্ডি ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামের মৃত রহিম বক্সের ছেলে। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, সকাল সাড়ে দশটার দিকে গাংনী উপজেলার হোগলবাড়ীয়া গ্রামের পার্শ্বে মাথাভাঙ্গা নদীর ওপারে একটি মরিচ ক্ষেতের মধ্যে লাশের সন্ধান পায় কৃষকরা। ঘটনাস্থল দৌলতপুর উপজেলার মধ্যে হওয়ায় খবর দেওয়া হয় খলিশাকুন্ডি পুলিশ ক্যাম্পে। নিয়ামত আলীর পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, তার ছেলের সাথে গ্রামের মুক্তি নামের এক মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক হয়। মঙ্গলবার মেয়ে পক্ষের লোকজন নিয়ামত আলীকে অপমান অপদস্থ সহ বিভিন্ন ভাবে হুমকি দেয়। এর জের ধরে তাকে হত্যা কিংবা তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে ধারনা করছেন পরিবারের লোকজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here