মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় বাড়ছে না: সিইসি

11

image_89984দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় বাড়ছে—জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ। আজ রবিবার রাত পৌনে ৮টায় শেরেবাংলা নগরের নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

রাজনৈতিক সমঝোতার ব্যাপারে সিইসি বলেন, ‘রাজনৈতিক সমঝোতা হোক—এটা সবাই চায়। কমিশন সমঝোতায় গেলে বিভ্রান্তি তৈরি হতে পারে। এ জন্য আমরা কোনো দলের কাছেই সমঝোতার জন্য যাইনি। গেলে প্রশ্ন উঠত আমরা এ দল বা সে দলের পক্ষ নিচ্ছি।’ সমঝোতার আশাবাদ ব্যক্ত করে সিইসি বলেন, ‘দুই দলেই অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ রয়েছেন। তারা দেশের স্বার্থে একটা ঐক্যমতে পৌঁছাবেন বলে আশা করা যায়।’

আগামীকাল ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের তারিখ অপরিবর্তিত রয়েছে উল্লেখ করে সিইসি বলেন, ‘রাজনৈতিক সংকটের কারণে এমনিতেই তফসিল ঘোষণা করতে দেরি হয়েছে। যে সময় তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে, তাতে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় বাড়ানোর সুযোগ নেই। কারণ, এখনো স্বতন্ত্রপ্রার্থী বাছাইয়ের কাজ রয়ে গেছে। এ ছাড়া, এবার ভোটার সংখ্যাও অনেক বেশি। এত সংখ্যক ভোটার তালিকা ঠিক করতেও সময়ের প্রয়োজন।’

অবরোধের কারণে কেউ সময় মতো মনোনয়নপত্র দাখিল করতে না পারলে, সে ক্ষেত্রে কী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘আপনারাই তো মিডিয়ায় প্রচার করছেন, সারা দেশের সব প্রার্থী ঠিক মতো মনোনয়নপত্র কিনেছেন এবং তারা সব কাজ ঠিকঠাক মতো করছেন। আশা করি—তারা নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই মনোনয়নপত্র দাখিল করবেন।’

আচরণ-বিধি লংঘনের বিষয়ে সিইসি বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট এলাকার রিটার্নিং কর্মকর্তাদের এ ব্যাপারে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে তারা যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।’

জাতীয় পার্টির (এ) ১০ দিন মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় বৃদ্ধির দাবি প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, ‘জাতীয় পার্টির দাবিগুলো আমরা বিবেচনায় নিয়েছি, কমিশনারদের নিয়ে বসে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব। সময় পরিবর্তন ছাড়াও তাদের অনেক দাবি ছিল।’

পর্যবেক্ষক দল পাঠাতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) নিরাপত্তাজনিত অভাবের কথা বলছেন। এ ব্যাপারে ইসির পদক্ষেপ কী—জবাবে সিইসি বলেন, ‘শুধু পর্যবেক্ষক নয়, ভোটারদের জন্যও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব। আমরা সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই। এ জন্য এরই মধ্যে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তারা এ ব্যাপারে সব ধরনের সহায়তা করার আশ্বাস দিয়েছে।’

ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত উইলিয়াম হানার বক্তব্যের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা তাদের পর্যবেক্ষণের জন্য দাওয়াত করি। এখনোও তা করা হয়নি। তিনি এসেছেন কবে এই ব্যাপারে জানতে চিঠি দেব। এ ছাড়া তাদের সঙ্গে এ ব্যাপারে আমাদের একটি চুক্তিও রয়েছে। চুক্তির বিষয়ে আমরা বলেছি—অন্যান্য বারের মতো পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করতে।’

পর্যবেক্ষকদের বিষয়ে ইসি বলেন, ‘পর্যবেক্ষকদের বিষয়ে আমাদের কয়েকটি মন্ত্রণালয় এক সাথে কাজ করে। আমরা তাদের নিয়ে বসেছিলাম। দাওয়াতপত্র, আবেদনপত্র, ভিসা প্রসেসিং, নিরাপত্তা ও অন্যান্য বিষয়ে কাজ চলছে।’

কমিশনের বৈঠক:

এর আগে দুই দফা মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় বাড়ানোর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বৈঠকে বসে কমিশন। দেশের সংঘাতময় পরিস্থিতিতে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় বৃদ্ধিসহ তফসিল পরিবর্তন না করার ব্যাপারে মত পোষণ করেন কমিশনাররা। বলা হয়—মনোনয়নপত্র জমাদানের সময় বাড়াতে হলে মনোনয়নপত্র বাছাই ও প্রত্যাহারের সময়ও বাড়াতে হবে। এ ক্ষেত্রে আগামী ৫ জানুয়ারি নির্বাচন করলে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ ও ব্যালট পেপার ছাপানোর জন্য যথেষ্ট সময় পাওয়া যাবে না। সে ক্ষেত্রে ভোটগ্রহণের তারিখও পেছাতে হবে। এতে কমিশন আরো বিতর্কিত হবে।

এনডিআইয়ের সঙ্গে বৈঠক:

আজ সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক পর্যবেক্ষক সংস্থা ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক ইনস্টিটিউটের (এনডিআই) একটি প্রতিনিধিদল প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে বৈঠক করেন। তবে ওই বৈঠকে কী আলোচনা হয়েছে, তা জানা যায়নি। এর আগে এনডিআইয়ের সঙ্গে বিএনপির সহসভাপতি শমসের মবিন চৌধুরী বৈঠক করেন। সকালে এনডিআইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে দূতাবাসের শীর্ষ ব্যক্তিরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here