ভোট গণনা চলছে

41

upzila-electionnewসংঘর্ষ, বোমাবাজি, ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও নির্বাচন বর্জনের মধ্য দিয়েই চতুর্থ ধাপে ৪৩ জেলার ৯১টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে গণনা। রবিবার সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত একটানা চলে এই ভোট গ্রহণ। নির্বাচনী সহিংসতায় মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় এক ইউপি চেয়ারম্যান নিহত হয়েছেন।

যেসব উপজেলা ভোট

চতুর্থ ধাপে যে ৯১টি উপজেলার নির্বাচন হবে তা হলো- ঢাকার ধামরাই, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ, দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ ও ফুলবাড়ী, জয়পুরহাটের পাঁচবিবি, বগড়ুার গাবতলী, রাজশাহীর তানোর, পুটিয়া ও বাগমারা, নাটোরের বড়াইগ্রাম, সিরাগঞ্জের চৌহালী, পাবনার ঈশ্বরদী ও ফরিদপুর, নড়াইল সদর, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু, যশোরের সদর ও কেশবপুর, বাগেরহাটের চিতলমারী ও মোল্লাহাট, খুলনার ফুলতলা, তেরখাদা, রূপসা, বটিয়াঘাটা ও দাকোপ, সাতক্ষীরার কলারোয়া, বরগুনার বেতাগী, পটুয়াখালীর সদর, গলাচিপা, মির্জাগঞ্জ, বাউফল ও দুমকী, ভোলার তজুমুদ্দিন, মনপুরা ও দৌলতখান, বরিশালের আগৈলঝরা, উজিরপুর ও বানারীপাড়া, ঝালকাঠির সদর, কাঠালিয়া, রাজাপুর ও নলছিটি, পিরোজপুরের সদর, জিয়ানগর, ভান্ডারিয়া ও মঠবাড়িয়া, টাঙ্গাইলের কালিহাতি, ভুয়াপুর, নাগরপুর ও মধুপুর, শেরপুরের নালিতাবাড়ী, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট, নেত্রকোনার মদন, কিশোরগঞ্জের ভৈরব, ইটনা, কটিয়াদি, মিঠামইন ও তাড়াইল, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া, গাজীপুরের কালিয়াকৈর, সুনামগঞ্জের শাল্লা ও ধর্মপাশা, সিলেটের সদর ও কানাইঘাট, মৌলভীবাজারের সদর, কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল, হবিগঞ্জের সদর, আজমেরীগঞ্জ, লাখাই, ও নবীগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার আখাউড়া ও নাসিরনগর, কুমিল্লার মেঘনা ও বরুড়া, চাঁদপুরের শাহরাস্তি, ফেনীর সোনাগাজী ও ফুলগাজী, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ, চট্টগ্রামের বাঁশখালী, আনোয়ারা, রাউজান, ফটিকছড়ি, রাঙ্গুনিয়া, বোয়ালখালী ও সাতকানিয়া, কক্সবাজারের রামু ও কুতুবদিয়া, রাঙামাটির জুড়াছড়ি এবং বান্দরবানের নাইখংছড়ি।চতুর্থ ধাপে ৪৩ জেলার ৯১ উপজেলায় আজ রবিবার সকাল ৮টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। ভোটগ্রহণ চলবে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত। তৃতীয় দফা নির্বাচনে বিশৃঙ্খলান অভিযোগ উঠলে এ ধাপের নির্বাচনে বেশ কঠোর নির্বাচন কমিশন। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী রয়েছে সতর্ক অবস্থায়। মাঠে রয়েছে সেনাবাহিনী। সশস্ত্র বাহিনীকে বলা হয়েছ্তেশুধু স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে টহল নয়, নির্বাচনী এলাকায় তাদের উপস্থিতি দৃশ্যমান করতে হবে। ম্যাজিস্ট্রেটদের নির্দেশের অপেক্ষায় না থেকে ঘটনা ঘটলে অ্যাকশনে যেতে হবে। ব্যালটবাক্স ছিনতোই করলে প্রয়োজনে গুলিরও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ভোট গণনা চলছে

সংঘর্ষ, বোমাবাজি, ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও নির্বাচন বর্জনের মধ্য দিয়েই চতুর্থ ধাপে ৪৩ জেলার ৯১টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে গণনা। রবিবার সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত একটানা চলে এই ভোট গ্রহণ। নির্বাচনী সহিংসতায় মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় এক ইউপি চেয়ারম্যান নিহত হয়েছেন।

যেসব উপজেলা ভোট

চতুর্থ ধাপে যে ৯১টি উপজেলার নির্বাচন হবে তা হলো- ঢাকার ধামরাই, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ, দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ ও ফুলবাড়ী, জয়পুরহাটের পাঁচবিবি, বগড়ুার গাবতলী, রাজশাহীর তানোর, পুটিয়া ও বাগমারা, নাটোরের বড়াইগ্রাম, সিরাগঞ্জের চৌহালী, পাবনার ঈশ্বরদী ও ফরিদপুর, নড়াইল সদর, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু, যশোরের সদর ও কেশবপুর, বাগেরহাটের চিতলমারী ও মোল্লাহাট, খুলনার ফুলতলা, তেরখাদা, রূপসা, বটিয়াঘাটা ও দাকোপ, সাতক্ষীরার কলারোয়া, বরগুনার বেতাগী, পটুয়াখালীর সদর, গলাচিপা, মির্জাগঞ্জ, বাউফল ও দুমকী, ভোলার তজুমুদ্দিন, মনপুরা ও দৌলতখান, বরিশালের আগৈলঝরা, উজিরপুর ও বানারীপাড়া, ঝালকাঠির সদর, কাঠালিয়া, রাজাপুর ও নলছিটি, পিরোজপুরের সদর, জিয়ানগর, ভান্ডারিয়া ও মঠবাড়িয়া, টাঙ্গাইলের কালিহাতি, ভুয়াপুর, নাগরপুর ও মধুপুর, শেরপুরের নালিতাবাড়ী, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট, নেত্রকোনার মদন, কিশোরগঞ্জের ভৈরব, ইটনা, কটিয়াদি, মিঠামইন ও তাড়াইল, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া, গাজীপুরের কালিয়াকৈর, সুনামগঞ্জের শাল্লা ও ধর্মপাশা, সিলেটের সদর ও কানাইঘাট, মৌলভীবাজারের সদর, কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল, হবিগঞ্জের সদর, আজমেরীগঞ্জ, লাখাই, ও নবীগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার আখাউড়া ও নাসিরনগর, কুমিল্লার মেঘনা ও বরুড়া, চাঁদপুরের শাহরাস্তি, ফেনীর সোনাগাজী ও ফুলগাজী, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ, চট্টগ্রামের বাঁশখালী, আনোয়ারা, রাউজান, ফটিকছড়ি, রাঙ্গুনিয়া, বোয়ালখালী ও সাতকানিয়া, কক্সবাজারের রামু ও কুতুবদিয়া, রাঙামাটির জুড়াছড়ি এবং বান্দরবানের নাইখংছড়ি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here