ভিডিও বার্তার কারণ ব্যাখ্যা করলেন সালাহউদ্দিন

11

52a07907772f1-Untitled-1

বিএনপির মুখপাত্র সালাহউদ্দিন আহমদ বলেছেন, সংবাদ সম্মেলন করা বা উন্মুক্ত পরিবেশে দলের ‘শান্তিপূর্ণ’ কর্মসূচি ঘোষণা করার মতো কোনো নিরাপদ জায়গা সরকার অবশিষ্ট রাখেনি। তাই বাধ্য হয়ে তাঁরা ভিডিও বার্তার মাধ্যমে কর্মসূচি ঘোষণা করছেন। তাঁর অভিযোগ, সরকার দেশে আফগানিস্তানের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সালাহউদ্দিন আহমদ এ কথা বলেন। অজ্ঞাত স্থানে থাকা বিএনপির মুখপাত্রের দায়িত্বে থাকা এই যুগ্ম মহাসচিব কয়েক দিন ধরে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে কর্মসূচি ঘোষণা করছেন। আজ সকালেও এক ভিডিও বার্তায় আগামী শনিবার সকাল থেকে নতুন করে লাগাতার ৭২ ঘণ্টার অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি।

ভিডিও বার্তার মাধ্যমে কর্মসূচি ঘোষণাকে তাচ্ছিল্য করে গতকাল বুধবার বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে বিএনপির মুখপাত্র বলেন, ‘দেশের সব সাংবিধানিক ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ এবং বিধিবিধান বিলুপ্তপ্রায়। তাই আমরা বাধ্য হয়ে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮-দলীয় জোটের অবস্থান ও কর্মসূচি ঘোষণা করছি।’

বিএনপির মুখপাত্র অভিযোগ করেন, পুলিশ বৃষ্টির মতো গুলি করে রাজপথে ‘গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সাথিদের’ নির্বিচারে হত্যা করছে। বিরোধী দলের নেতা-কর্মীরা ডজন ডজন মিথ্যা মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে নিরন্তর ঘরছাড়া। তিনি বিরোধী দলের আটক সব নেতা-কর্মীর মুক্তি দাবি করেন।

সালাহউদ্দিন বলেন, তাঁরা এখনো আশা করছেন, সরকার শান্তির পথে এগোবে। নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নিবে। নির্বাচনী তফসিল বাতিলের ব্যবস্থা নেবে।

বিরোধী দলের দাবি মেনে নেওয়ার কোনো রকমের ইঙ্গিত না পাওয়ায় ১৮-দলীয় জোট কাল শুক্রবার গায়েবানা জানাজা এবং শনিবার সকাল ছয়টা থেকে আগামী মঙ্গলবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত আবারও অবরোধের ডাক দিয়েছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here