ফখরুল-আব্বাস-সালামের জামিন নামঞ্জুর

23

FSAরমনা থানার পরিবাগ মোড়ে যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যাসহ ৩টি মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুস সালামের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত। জেলা ও দায়রা জজ মো. জহুরুল হক ছুটিতে থাকায় ভারপ্রাপ্ত বিচারক রুহুল আমিন রোববার শুনানি গ্রহণ করেন। শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করেন তিনি। জামিন শুনানিতে আসামিপক্ষে উপস্থিত ছিলেন, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, অ্যাডভোকেট মাসুদ আহাম্মেদ তালুকদার, অ্যাডভোকেট মোসলে উদ্দীন জসিম, অ্যাডভোকেট আব্দুল খালেক মিলনসহ অন্যান্য বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা।

গত ১৮ মার্চ ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে ওই তিন নেতার জামিনের আবেদন করা হলে বিচারক মো. জহুরুল হক রোববার জামিনের শুনানির দিন ধার‌্য করেন। গত ১৬ মার্চ রমনা থানার পৃথক তিন মামলায় সিএমএম আদালত তাদের কারাগারে পাঠান। বর্তমানে তারা কাশিমপুর কারাগারে রয়েছেন। এর মধ্যে রমনা থানার ৭(১)১৪ নম্বর মামলার আসামি মির্জা ফখরুল। রমনা থানার ৪২(৯)১৩ মামলার আসামি আব্দুস সালাম এবং ওই দুইটি মামলাসহ অপর একটি মামলার আসামি মির্জা আব্বাস। তিনটিই হত্যা মামলা।

গত ৩ জানুয়ারি রমনা থানার পরিবাগের মোড়ে যাত্রীবাহী বাসে মানুষ হত্যার ঘটনায় বিএনপি নেতাদের নামে রমনা থানায় ৭(১)১৪ নম্বর মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলার এজাহারে মির্জা ফখরুলের নাম থাকলেও এফআইআরে কোনো আসামির নাম উল্লেখ করা হয়নি। এ ঘটনায় ফরিদ মিয়া, শাহিনা আক্তার ও বাবুল নামে তিনজন বাসযাত্রী দগ্ধ হয়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শাহিনা আক্তার মারা যান।

অন্যদিকে গত বছরের ৩০ নভেম্বর রাজধানীর মালিবাগ চৌধুরীপাড়ায় ডিআইটি রোডে একটি চলন্ত বাসে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে দৃর্বৃত্তরা। এতে বাসে আগুন ধরে গেলে ড্রাইভার নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রিকশায় চাপা দেন। এতে ঘটনাস্থলে হাবিবুর রহমান নামে একজন নিহত হন। আগুনে পুড়ে আহত হন বাসের অনেক যাত্রী। এ মামলায় মির্জা আব্বাসকে আসামি করা হয়েছে।

এছাড়া গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর রাজধানীর বাংলামোটর মোড়ে ট্রাফিক পুলিশের রিক্যুইজিশন করা গাড়িতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এতে ঘটনাস্থলেই ট্রাফিক পুলিশের কনস্টেবল ফেরদৌস পুড়ে মারা যান। এ মামলাসহ তিনটি মামলায়ই মির্জা আব্বাস আসামি।

এদিকে গত ১৬ মার্চ দুদকের দায়ের করা অর্থপাচার মামলায় তিন দিনের রিমান্ড শেষে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। এরআগে গত ১৩ মার্চ খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে তিন দিনের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শামসুল আরেফিন। গত ১০ ফেব্রুয়ারি ওই মামলায় ড. মোশাররফ হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন পেলেও গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সুপ্রীমকোর্টের আপিল বিভাগ তা বাতিল করে দেন। এরপর ১২ মার্চ রাতে তাকে আটক করে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here