প্রতিবন্ধীদের প্রতি আরো সহানুভূতিশীল হতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

9

Report

 

প্রতিবন্ধীদের প্রতি আরো সহানুভূতিশীল হতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

প্রতিবন্ধীরা সমাজেরই অংশ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবন্ধীর সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে তাদের প্রতি আরো সহানুভূতিশীল হতে হবে। বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৮ম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা বলেন। খবর: বাসসের।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবন্ধীরা আমাদের সমাজেরই অংশ। তারা আমাদের সম্পদ, বোঝা নয়। এসব প্রতিবন্ধীর প্রতি বিশেষ নজর দেয়া হলে তারা তাদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের মাধ্যমে সমাজে ব্যাপক অবদান রাখতে পারবে। সুতরাং আমি সকলের কাছে এ আহ্বান রাখতে চাই আপনারা কেউ তাদের অবহেলার চোখে দেখবেন না। বরং আরো সহানুভূতি ও ভালোবাসা দিয়ে তাদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে সহায়তা করবেন। অটিজমে আক্রান্ত এসব কোমলমতি শিশুদের প্রতি বিশেষ নজর দেয়া হলে তারাও হতে পারে সমাজের মূল্যবান সম্পদ।

অনুষ্ঠানের শুরু থেকেই মঞ্চ আর মিলনায়তনে অতিথিদের বসার স্থানের মাঝে ফাঁকা জায়গায় হেঁটে বেড়াচ্ছিল এক অটিস্টিক কিশোর। তার পরনে ছিল নীল ফতুয়া। তাকে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিতরা থামানোর চেষ্টা করলে মঞ্চে বসা শেখ হাসিনা তাদের নিষেধ করেন।  অনুষ্ঠানের পুরোটা সময় নিজের মনে মিলনায়তনের ভেতরে ঐ কিশোর হেঁটে বেড়ায়।
অটিজম সম্পর্কে নিজের ধারণা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি নিজেও কিন্তু এ ব্যাপারে কখনো সচেতন ছিলাম না বা জানতাম না। আমি এ বিষয়টা জেনেছি আমার মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের কাছ থেকে। এজন্য তাকেও ধন্যবাম জানান প্রধানমন্ত্রী।

‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন’ এবং ‘নিউরো-ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্ট’ আইন করার কথা তুলে ধরে এই ট্রাস্ট বা ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে প্রতিবন্ধীদের সুরক্ষা দেওয়ার কথা অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে ন্যাশনাল অটিজম এডভায়জরি কমিটির চেয়ারপারসন সায়মা ওয়াজেদ হোসেনের একটি ভিডিও বার্তা প্রচার করা হয়।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট প্রমোদ মানকিন, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ড. মোজাম্মেল হোসেন এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব নাসিমা বেগম বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here