পেট্রোল বোমায় ঝরে গেল আরো তিনটি প্রাণ

16

Petrol Boma

আবুল খায়ের

পেট্রোল বোমা একের পর এক উপার্জনক্ষম পরিবারের সদস্যদের প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে। স্বজনহারাদের আহাজারি পেট্রোল বোমা মেরে হত্যার সঙ্গে জড়িত ঘাতকদের হূদয় স্পর্শ করেনি। তারা হরতাল-অবরোধে যানবাহনে কিংবা যাত্রীবাহী বাসে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রশাসন তথা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ব্যর্থ হচ্ছে। জনমনে চরম আতংক ও উত্কণ্ঠার চাপ দেশব্যাপী। গতকাল বুধবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল বার্ন ইউনিটে পেট্রোল বোমার আগুনে দগ্ধ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির কর্মকর্তা শাহীনা আক্তার (৩৮) ও ফল ব্যবসায়ী মো. ফরিদ মিয়া (৬০) মারা যান। এ নিয়ে হরতাল-অবরোধে গতকাল পর্যন্ত যানবাহন ও যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোল বোমায় ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দগ্ধ ২২ জন মারা যান। স্বজনহারাদের বুক ফাটা কান্নায় সমগ্র বার্ন ইউনিট জুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে। তাদের সান্ত্বনা দেয়ার ভাষাও অনেকের ছিল না। ৩৬ জন বার্ন ইউনিটে চিকিত্সাধীন। তাদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শংকর পাল জানান।

এছাড়া সিরাজগঞ্জে পেট্রোল বোমা হামলায় আরও এক সবজি ব্যবসায়ী গতকাল মারা যান। ৩ জানুয়ারি ভোরে পরিবাগে রূপসী বাংলা হোটেল মোড়ে (সাবেক শেরাটন হোটেল মোড়) বাসে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে দুই তরুণ পালিয়ে যায়। এ সময় চালক বাবুল হাওলাদার (৪০), যাত্রী শাহীনা আক্তার (৩৮) ও ফল ব্যবসায়ী মো. ফরিদ মিয়া (৬০) দগ্ধ হন। তাদেরকে বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চালকের হাত ও পা সামান্য ঝলসে যায়। যাত্রী শাহীনা আক্তারের হাত-পা মুখমণ্ডলসহ দেহের ৬৪ ভাগ পুড়ে যায়। ফল ব্যবসায়ী মো. ফরিদ মিয়ার মুখমণ্ডলসহ দেহের ৪৮ ভাগ ও তার শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। এ দুই যাত্রীকে বার্ন ইউনিটে ভর্তি করার পর তাদেরকে ঐ দিন আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। শাহীনা আক্তার গত মঙ্গলবার রাত আড়াইটায় মারা যান। তার মৃত্যুর ৭ ঘণ্টা পর গতকাল সকাল সাড়ে ৯টায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ফল ব্যবসায়ী ফরিদ। শাহীনা আক্তারের স্বামী সাংবাদিক ফখরুজ্জামান এবং ফরিদ মিয়ার স্ত্রী হালিমা বেগম ও শিশুপুত্র লিটনের বুকফাটা কান্নায় বার্ন ইউনিট জুড়ে হূদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। ৩ ছেলে ও ১ মেয়ের পিতা ছিলেন ফরিদ মিয়া। ছিল তার সুখের সংসার। শাহীনা আক্তার খুলনায় একটি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির কর্মকর্তা। প্রতি মাসে অফিসের কাজে ঢাকা আসতেন। এবার এসে তিনি লাশ হয়ে ফিরেন খুলনায়। একমাত্র পুত্র মেরীন ইঞ্জিনিয়ার কানাডায় জাহাজে কাজ করছেন। স্বামী খুলনার দৈনিক মত প্রকাশের ব্যুরো চীফ ফখরুজ্জামান স্ত্রীর লাশ গ্রহণ করার সময় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। নাখালপাড়ায় এক আত্মীয়ের বাসা থেকে বের হয়ে ৩ জানুয়ারি ভোরে তার স্ত্রী উক্ত বাসে গুলিস্তানে যাওয়ার উদ্দেশ্যে উঠেন। ফল ব্যবসায়ী ফরিদ প্রতিদিনের মত পুরনো ঢাকার বাদামতলী আড়ত থেকে ফল কেনার উদ্দেশ্যে ক্যান্টনমেন্ট বালুঘাট এলাকা থেকে ঐদিন ভোরে গুলিস্তানের উদ্দেশ্যে একই মিনিবাসে উঠেন। রূপসী বাংলা হোটেল মোড়ে পৌঁছলে পেট্রোল বোমা হামলার শিকার হয় বাসটি। এদিকে হরতাল-অবরোধের যন্ত্রণা থেকে রেহাই পেতে চান স্বজনহারা এসব মানুষ। তারা প্রধানমন্ত্রীর কাছে বেঁচে থাকার গ্যারান্টিও দাবি করেছেন।

চালক বাবুল হাওলাদার জানান, রূপসী বাংলা মোড়ের কাছে গেলে দূর থেকে রাস্তার পাশে কালো জ্যাকেট পরিহিত দুই তরুণকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেন তিনি। বাসটি তাদের কাছে গেলে যাত্রী ভেবে ধীরগতিতে চালান। ঐ সময় এক তরুণ বোতলে আগুন ধরিয়ে চালক বরাবর বোমা নিক্ষেপ করে। যাত্রী শাহীনা আক্তারের দেহের উপর বোমাটি পড়ে। পাশে বসা দুইজন দগ্ধ হন। চালক বালু ও পানি নিক্ষেপ করে আগুন নিভিয়ে ফেলেন। দুই যাত্রীকে উদ্ধার করতে গিয়ে চালকের দুই হাত পা সামান্য ঝলসে যায় বলে জানান।

ফরিদ ক্যান্টনমেন্ট বালুঘাট বাজারের ফল ব্যবসায়ী। শাহীনা আক্তার খুলনা শহরে টুথপাড়া এলাকায় থাকতেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, উক্ত বাসে পেট্রোল বোমা হামলার ঘটনায় মূল আসামি এখনও গ্রেফতার হয়নি। তবে কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানান।

সিরাজগঞ্জে নিহত ২

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের পাঁচলিয়ার হোড়গাতীতে ট্রাকে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের ঘটনায় বগুড়ার দুই সবজি ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে একটি সবজি বোঝাই ট্রাক উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। রাত আটটার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের পাঁচলিয়ায় হোড়গাতী এলাকায় পৌঁছালে অবরোধকারীরা তাতে পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারে। এতে ঘটনাস্থলেই সবজি ব্যবসায়ী মিলন (৩২) নিহত হন, অগ্নিদগ্ধ হন অপর দুইজন। এদের মধ্যে বুধবার চিকিত্সাধীন অবস্থায় মিলন হোসেন (৩৩) নামে আরো একজন মারা যান।

এনায়েতপুরে ট্রাক, অটোরিক্সা এবং নসিমন ভাংচুর

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, এনায়েতপুরে শিবিরের ঝটিকা মিছিল থেকে ২টি ট্রাক, ৪টি সিএনজি অটোরিক্সা এবং ৪টি নসিমন ভাংচুর করা হয়েছে। বুধবার রাতে হরতাল শেষে ৫০/৬০ জনের শিবির কর্মীরা আকস্মিক লাঠি মিছিল বের করে। তা এনায়েতপুর কেজির মোড় অতিক্রম কালে ২টি মিনি ট্রাক, ৪টি সিএনজি অটোরিক্সা, ৪টি নসিমন ভাংচুর এবং ফুটপাতের কয়েকটি দোকান ভাংচুর করে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সাঁথিয়ায় পেট্রোল বোমায় আহত ৫

সাঁথিয়া (পাবনা) সংবাদদাতা জানান, পাবনার সাঁথিয়ায় পৌর এলাকায় পেট্রোল বোমার আগুনে পুড়ে গেছে একটি মাইক্রোবাস। তাড়াহুড়া করে নামতে গিয়ে আহত হয়েছেন পাঁচ যাত্রী। বুধবার ভোরে সিএন্ডবি-মাধপুর সড়কের ছেঁচানিয়া ব্রিজের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ইবিতে বাসে আগুন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি জানান, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে ইবি শাখা ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। গতকাল সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মমতাজ ভবনের সামনে রাখা সরকারি বাসটিতে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিলে এটি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বরিশালে সড়কে পেট্রোল ঢেলে আগুন

বরিশাল অফিস জানায়, শহরে গতকাল বুধবার সড়কে পেট্রোল ঢেলে সড়কে অগ্নিসংযোগ ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। নাশকতার আশংকায় জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে দুই নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ফুলগাজীতে মহিলা গুলিবিদ্ধ

ফেনী প্রতিনিধি জানান, বুধবার হরতাল চলাকালীন সময়ে ফুলগাজী বাজারে পুলিশের সঙ্গে পিকেটারদের সংঘর্ষের সময় রহিমা আক্তার (৩০) নামে এক মহিলা চোখে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তিনি স্থানীয় মত্স্য অফিসের কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদের স্ত্রী। তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here