নূর হোসেন ৮ দিনের রিমান্ডে

22

জনতার নিউজঃ-

 

নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আট দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। আজ রবিবার দুপুরে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা আদালতের দ্বিতীয় বিচারিক হাকিম এ আদেশ দেন।

তার বিরুদ্ধে কাগজপত্র ছাড়া অনুপ্রবেশ এবং অবৈধভাবে অস্ত্র রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এর আগে গতকাল শনিবার রাতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতার উপকণ্ঠে বাগুইহাটির কৈখালির ইন্দ্রপ্রস্থ এপার্টমেন্ট থেকে দুই সঙ্গীসহ নূর হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ সাতজনকে অপহরণ করা হয়। পরদিন নজরুল ইসলামের স্ত্রী নূর হোসেনকে প্রধান আসামি করে ফতুল্লা থানায় মামলা করেন। ৩০ এপ্রিল অপহূতদের ছয়জনের এবং পরদিন আরো একজনের লাশ শীতলক্ষ্যা নদীতে ভেসে ওঠে।

সাত খুনের ঘটনার পর নূর হোসেন ভারতে পালিয়ে যায়। নূর হোসেনকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করার অভিযোগে বেনাপোল সীমান্ত এলাকা থেকে দুই জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। নূর হোসেনকে ধরতে ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড নোটিশ জারি করা হয়। পাশাপাশি বাংলাদেশ পুলিশের তরফ থেকেও কলকাতা পুলিশের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করা হয়।

অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জ খুনের ঘটনায়। র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র্যাব) তিন কর্মকর্তাসহ মোট ২৮ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। এদের মধ্যে র্যাবের তিন কর্মকর্তাসহ ১৪ জনকে সাত খুনের ঘটনায় গ্রেফতার দেখানো হয়। অপর ১৪ জনকে দেখানো হয় ৫৪ ধারায়। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে র্যাবের দুই কর্মকর্তা মেজর আরিফ এবং লেফটেন্যান্ট কমান্ড্যান্ট এমএম রানা ও নূর হোসেনের বডিগার্ড চার্চিল আদালতে হত্যাকান্ডের বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দিতে তারা জানিয়েছেন, নূর হোসেনের ইন্ধনেই এই সাত খুনের ঘটনা ঘটে।

https://www.youtube.com/watch?feature=player_embedded&v=NDpXOEsRhf0

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here