নিরাপত্তার কারণে উন্মুক্ত ভেন্যুতে ট্রফি রাখা হচ্ছে না

12

pm
বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গতকাল সকাল থেকে সারাদিন ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি নির্ধারিত দর্শকদের উপভোগের ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু গতকাল সকাল থেকেই অনিশ্চয়তা শুরু হয়, দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত স্থানে ট্রফি আনা হবে কিনা। ফিফা বাংলাদেশকে জানিয়েছে উন্মুক্ত স্থানে ট্রফি প্রদর্শন করা যাবে না। কারণ ফিফা নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে এ ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা পাঠিয়েছে। স্টেডিয়ামে ট্রফি প্রদর্শনী না করা গেলে হোটেল রেডিসনেই সেটি করা হবে বলে জানা গেছে।

ফিফার কাছ থেকে পত্র পেয়ে দুর্ভাবনায় পড়ে কোকাকোলা বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠান এবং বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। দর্শকদের আগেই জানানো হয়েছে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দুই দিন ট্রফি প্রদর্শন করা হবে। ট্রফির সাথে ছবি তুলবেন নির্ধারিত দর্শক। সেখানে অনেক আনন্দ আয়োজনের ব্যবস্থা থাকছে। ১৫ হাজার দর্শক আসবেন ট্রফির পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তুলবেন বলে। কিন্তু ফিফার নিষেধাজ্ঞা পেয়ে উন্মুক্ত স্টেডিয়ামে ট্রফি প্রদর্শনের চূড়ান্ত পরিকল্পনা থেকে সরে আসে। বাংলাদেশে ট্রফি প্রদর্শনের ব্যাপারে নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মকর্তা শেখ মারুফ হাসান গতকাল দুপুরে জানিয়েছেন তারা নিরাপত্তা দিতে সবরকম ব্যবস্থা নিশ্চিত রেছেন। স্টেডিয়ামে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আমরা নিরাপত্তা বিভাগ থেকে বলতে পারি বিন্দুমাত্র দুর্বলতা রাখিনি। এখন এটি ফিফার বিষয়, তারা কি করবেন।’

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ফিফা ট্রফি প্রদর্শনের জন্য দিনভর ফিফার সাথে কথা হয়। ফিফাকে বুঝানোর চেষ্টা হয়েছিল। সন্ধ্যায় ফিফা ট্রফি নিয়ে রাজধানীর হোটেল রেডিসনে পূর্ব নির্ধারিত সংবাদ সম্মেলন শুরু হওয়ার কথা ছিল সন্ধ্যা ৬টায়। কিন্তু নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও ট্রফি উন্মোচন করা হচ্ছিল না। সংবাদ সম্মেলনও শুরু করছিল না তারা। আয়োজকরা ফিফার সাথে যোগাযোগ করছিলেন বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ট্রফি প্রদর্শনের অনুমতি চেয়ে। কিন্তু কাজ হচ্ছিল না বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়। শেষ পর্যন্ত সংবাদ সম্মেলন শুরু হয় ৫৫ মিনিট দেরিতে। বক্তব্য রাখেন কোকাকোলা বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার দেবাশিস দেব, বাফুফের সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী, উপস্থিত ছিলেন আব্দুল মোনোম লিমিটেডের মহিউদ্দিন মোনেম এবং ফিফার কর্মকর্তারা। কিন্তু সেখানেও বাফুফে এবং কোকাকোলা প্রতিষ্ঠান ঘোষণা করেনি আজ বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দর্শকরা ট্রফি দেখতে পারবেন কিনা। তারা এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত চেষ্টা করে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে। একই সাথে যদি অনুমতি না পাওয়া যায় তাহলে রেডিসন হোটেলই হতে পারে ট্রফি প্রদর্শনের স্থান।

গতকাল রাতে হোটেলে সংবাদ সম্মেলন স্থলে আসেন ঢাকাস্থ মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজিনা। তিনি অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছার পর বাফুফের কর্মকর্তারা তাকে অভ্যর্থনা জানান এবং কুশলাদি বিনিময় করেন। সেখানে কিছুক্ষণ অবস্থান করেন ড্যান মজিনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here