দুই লাখ টাকার জন্য প্রবাসির স্ত্রী’কে হত্যার অভিযোগ

21

জনতার নিউজ

khun

জমি কেনার নাম করে দুই লাখ টাকা যৌতুকের জন্য এক প্রবাসির স্ত্রী হাজেরা বেগম’কে (২৩) হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গৃহবধুর স্বামী ইরাকে রয়েছে এবং এ খুনের ঘটনার পর বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে।

পুলিশ গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। বুধবার টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের হাটুভাঙ্গা বেলতৈল গ্রামে এ খুনের ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় সংবাদদাতা জানান, নিহত গৃহবধু হাজেরার পিতার নাম সোহরাব আলী সিকদার। বাড়ি মির্জাপুর উপজেলার চিতেশ্বরী গ্রামে। বুধবার সোহরাব আলী অভিযোগ করেন, প্রায় তিন বছর পূর্বে হাটুভাঙ্গা বেলতৈল গ্রামের সোনামুদ্দিনের ছেলে শফি মিয়া(৩০) সঙ্গে হাজেরার বিয়ে হয়।

বিয়ের সময় মোটা অংকের যৌতুক দেওয়া হয়। সোহরাব আলী আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘তার কোন ছেলে সন্তান না থাকায় বিয়ের কিছু দিন যেতে না যেতেই শুরু হয় তার কন্যা হাজেরার উপর শ্বশুর বাড়ির লোকজনের অমানুবিক অত্যাচার আর নির্যাতন। বিদেশ যাবে বলে প্রায় ৫ লাখ টাকা যৌতুক নেয় শফি সেই টাকায় বর্তমানে সে ইরাকে রয়েছে।’

এ দিকে স্বামী বাড়িতে না থাকায় তার অবর্তমানে গত কয়েক দিন ধরে শ্বশুর সোনামুদ্দিন,শ্বাশুড়ি, ননদ নাছিমা ও মনোয়ারাসহ বাড়ির লোকজন জমি নেকার নাম করে হাজেরা বাপের বাড়ি থেকে দুই লাখ আনতে বলে। অসহায় পিতার কাছ থেকে টাকা আনতে বিলম্ব হওয়ায় বাড়ির লোকজন হাজেরা নির্যাতন ও পিটিয়ে হত্যা করে। হত্যাকে আত্নহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেওয়ার জন্য পরে তার লাশ বাড়িতে ঘরের একটি ধরনার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করেছে। এই খুনের ঘটনায় হাজেরার পিতা সোহরাব সিকদার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।এ রিপোর্ট পাঠানো পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here