দিনাজপুরে পিঁয়াজের ট্রাকে পেট্রোল বোমা, নিহত ২ শিবগঞ্জে ট্রাকে আগুন, চালকসহ দগ্ধ ২

14

Onionবৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুরের হাকিমপুরে পিঁয়াজ বোঝাই ট্রাকে দুর্বৃত্তদের পেট্রোল বোমা হামলায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেছেন দুইজন। এসময় আরও তিনজন আহত হয়েছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ফলের ট্রাকে দুর্বৃত্তরা পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিলে এর চালক ও হেলপার দগ্ধ হন। এছাড়া সাতক্ষীরা, না’গঞ্জ, কালিয়াকৈর, সুজানগর ও কোম্পানীগঞ্জে কয়েকটি যানবাহনে পেট্রোল বোমা হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

দিনাজপুর ও হাকিমপুর (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের হাকিমপুরে পিঁয়াজ বোঝাই একটি ট্রাকে দুর্বৃত্তদের ছোঁড়া পেট্রোল বোমায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেছেন দুইজন। আহত হয়েছেন তিনজন। হিলি স্থলবন্দর থেকে ট্রাকটি গাইবান্ধা যাওয়ার পথে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে হিলি স্থলবন্দর থেকে পিঁয়াজ বোঝাই ট্রাকটি গাইবান্ধার সাদুল্ল্যাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। ট্রাকটি হিলির ইটাবাওনা এলাকায় পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা ট্রাকের সামনে চার-পাঁচটি পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারে। এসময় ট্রাকে আগুন ধরে গেলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে ট্রাকটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এসময় চালকসহ ট্রাকের কেবিনে থাকা পাঁচজন ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে। এতে চালকসহ তিন জন বেরিয়ে এলেও দুইজন আটকা পড়েন। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করতে না পারায় রাত তিনটার দিকে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে তিন ঘন্টা চেষ্টার পর শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় দুইজনের লাশ উদ্ধার করেন। নিহতরা হলেন- ট্রাক মালিক হিলির শাহ নেওয়াজ ও পিঁয়াজের মালিকের প্রতিনিধি গাইবান্ধার সাদুল্ল্যাপুরের আদিনূর রহমান। পুলিশ লাশ দুটি দিনাজপুর মর্গে পাঠিয়েছে। আহত তিনজনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) : শিবগঞ্জে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ফলের ট্রাকে আগুন দিলে চালক ও হেলপার পুড়ে গুরুতর দগ্ধ হয়। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটায় সোনামসজিদ থেকে বরই ফলবাহী একটি ট্রাক ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসলে কানসাট শাপলা সিনেমা হলের কাছাকাছি পৌঁছা মাত্র আগে থেকে ওত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দিলে ট্রাকের চালক ও হেলপারের চিত্কারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা প্রায় দেড় ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে এবং ঐ দু’জনকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। জরুরি বিভাগের চিকিত্সক রিগ্যান জানান, তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় শুক্রবার ভোরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আবুল হাসান জানান, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১০ লাখ টাকা এবং প্রায় ৩০ লাখ টাকার মালামাল আমরা উদ্ধার করেছি। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি একে এম মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ক্ষতির পরিমাণ সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না।

সাতক্ষীরা : বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকা অনির্দিষ্টকালের অবরোধ শুক্রবার সাতক্ষীরায় ঢিলেঢালাভাবে পালিত হয়েছে। অবরোধ সমর্থক ১৮ দলীয় নেতাকর্মীদের সারাদিন কোথাও দেখা মেলেনি। টানা অবরোধে পরিবহন বন্ধ থাকায় সাধারণ যাত্রীরা পড়েছেন বিপাকে। তারা ইঞ্জিন ভ্যান, নছিমন, করিমন ও ইজিবাইকে গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করেন। বেলা বাড়ার সাথে সাথে শহরের কিছু দোকানপাট খুলতে দেখা যায়।

এদিকে, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দর সড়কের গাংনিয়া এলাকায় বন্দর থেকে ছেড়ে আসা একটি পিঁয়াজ ভর্তি ট্রাকে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে স্থানীয় মানুষ ও পুলিশ গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

নারায়ণগঞ্জ ও সিদ্ধিরগঞ্জ : সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী এলাকায় অবরোধ সমর্থনে শুক্রবার সকাল ৯টায় পিকেটিং করেছে ১৮ দলের নেতাকর্মীরা। এসময় তারা একটি যাত্রীবাহী দুরন্ত পরিবহনে পেট্রোল বোমা মারে ও একটি ট্রাকে আগুন দেয়। এতে অন্তত ৫ জন আহত হয়। সকাল ৯টায় সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী এলাকায় নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-ডেমরা সড়কে মিছিল বের করে অবরোধকারীরা। বিদ্যুতের খুঁটি ফেলে সড়কে ব্যারিকেড দেয় তারা। এ সময়ে অবরোধকারীরা যাত্রীবাহী দুরন্ত পরিবহনের একটি হিউম্যান হলার থামিয়ে ভাংচুর করে পেট্রোল বোমা মেরে জ্বালিয়ে দেয়। এ সময়ে দ্রুত নামতে গিয়ে ৫ যাত্রী আহত হয়েছে। এছাড়াও অবরোধকারীরা একটি ট্রাক আটকে আগুন ধরিয়ে দেয়। অবরোধকারীরা পাঠানটুলী এলাকায় রাস্তার পাশে থাকা সাবেক এমপি শামীম ওসমানের বেশ কয়েকটি ফেস্টুন ও ব্যানারে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে পুলিশ আসলে অবরোধকারীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় প্রায় আধাঘণ্টা নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-ডেমরা সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে সকালে শহরের শীতলক্ষ্যা এলাকার বাপ্পি সরণি থেকে জেলা শ্রমিক দলের মিছিল বের হয়ে কাচারী গল্লি এলাকায় আসলে পুলিশ তাদের ধাওয়া দেয়। পুলিশের ধাওয়ায় মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) : ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার হরতকীতলা এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে শ্রমিক বহনকারী একটি বাসে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে অবরোধকারীরা পালিয়ে যায়। পেট্রোল বোমায় মুহূর্তের মধ্যেই বাসে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর ফায়ারসার্ভিসের একটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বাসে কোন লোকজন না থাকায় কেউ হতাহত হয়নি। তবে ওই বাসের কিছু অংশ পুড়ে গেছে।

সুজানগর (পাবনা):পাবনার সুজানগরের বদনপুর কবরস্থানের নিকট একটি মালবোঝাই ট্রাকে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় যৌথবাহিনী এক শিবির নেতাসহ ৪ ছাত্রদল কর্মীকে গ্রেফতার করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে। সুজানগর থানা পুলিশ জানায়, টিনবোঝাই ট্রাকটি ঢাকা থেকে পাবনা-নগরবাড়ী মহাসড়ক হয়ে ইশ্বরদী যাচ্ছিল। রাত আনুমানিক ৩টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে অবরোধকারীরা গাছের গুঁড়ি ফেলে গতিরোধ এবং পেট্রোল ঢেলে দিয়ে অগ্নিসংযোগ করে।

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী): দুর্বৃত্তদের আগুনে প্রবাসী বহনকারী একটি মাইক্রোবাস সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে ২ যাত্রী ভাড়া করে মাইক্রোবাস নিয়ে নোয়াখালী কবিরহাট যাওয়ার পথে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌর এলাকার বসুরহাট করালিয়া নামক স্থানে দুর্বৃত্তরা গাড়ির গতিরোধ করে গাড়ি থেকে যাত্রী ও মালামাল নামিয়ে পেট্রোল মেরে গাড়িটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

রাজাপুর (ঝালকাঠি): ঝালকাঠি-ভান্ডারিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের বেরপাশায় ককটেল ফাটিয়ে অগ্নিসংযোগ করেছে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা। এ ঘটনার সাথে জড়িত অভিযোগে রাজাপুর উপজেলার পিংড়ি এলাকা থেকে ছয় ছাত্রদল নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে রাজাপুর থানা পুলিশ। শুক্রবার বেলা ২টায় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

সোনাতলায় আওয়ামী

লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ

বগুড়া প্রতিনিধি জানান, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলায় ১৮ দলের নেতা-কর্মীদের সাথে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়েছে। শুক্রবার বিকালে স্থানীয় পিটিআই মোড়ে ১৮ দলের মিছিলে আওয়ামী লীগের বাধা দেয়াকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২০ থেকে ২৫ জন আহত হয়েছে ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বাতিলের দাবিতে জেলা ১৮ দলের ডাকা আজ থেকে ৪৮ ঘন্টা হরতালের সমর্থনে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে সোনাতলা উপজেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে ১৮ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীরা। মিছিলটি স্থানীয় পিটিআই মোড়ে পৌঁছলে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বাধা দেয়। ফলে উভয় পক্ষে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, একর পর এক ককটেল বিস্ফোরণ, ইট পাটকেল নিক্ষেপ। মুহূর্তেই পুরো উপজেলা সদর পরিণত হয় রণক্ষেত্রে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল ও শটগানের ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে । ঘন্টাব্যাপী ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ চলার পর পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটছে । পরিস্থিতি অবনতির আশংকায় এবং নিয়ন্ত্রণে আনতে বগুড়া থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এনে মোতায়েন করা হয়েছে।

চাঁদপুরে সংঘর্ষে আহত ২

চাঁদপুরে যুবলীগের এক কর্মীকে মারধরের ঘটনায় সদর উপজেলার হানারচর গাজীপুর এলাকায় ১টি দোকানে অগ্নিসংযোগ ও কয়েকটি দোকান ভাংচুর করেছে আওয়ামী লীগ কর্মীরা। দুই গ্রুপের হামলা ও সংঘর্ষে আহত হয়েছে ১২ জন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত থানা যুবলীগ সদস্য মমিন খান ও ছাত্রলীগ নেতা শাবনুর শানুকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে হানারচর হরিণা ফেরিঘাট সংলগ্ন বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে ইউনিয়ন যুবলীগের সমাবেশকে ঘিরে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এই ঘটনার জের ধরে চাঁদপুর শহরে বিএনপির জেলা কার্যালয় হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ কর্মীরা। এছাড়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদকের বাসায় হামলা চালানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here