তফসিল প্রত্যাখ্যান ১৮ দলের আজ ভোর ৬টা থেকে দেশব্যাপী ৪৮ ঘণ্টার সড়ক নৌ ও রেলপথ অবরোধ

12

image_88554প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ ঘোষিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল প্রত্যাখ্যান করেছে প্রধান বিরোধী দল বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদে এবং অনতিবিলম্বে তা স্থগিতের দাবিতে আজ মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত টানা ৪৮ ঘণ্টা সারাদেশে রাজপথ, রেলপথ ও নৌপথ অবরোধের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ১৮ দল। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৭টায় সিইসি তফসিল ঘোষণার দেড় ঘণ্টার মাথায় এই কর্মসূচির ডাক দেয়া হয়।

তফসিল ঘোষণার পরপরই গতকাল রাতে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া তার গুলশান কার্যালয়ে বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের ও ১৮ দলীয় জোট নেতাদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেন। বৈঠকের পর রাত ৯টায় সংবাদ সম্মেলনে অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে এই সরকার চরম কাণ্ডজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছে। নির্বাচনের নামে কোনো প্রহসনে ১৮ দলীয় জোটসহ বিরোধী অন্য দলগুলো অংশ নেবে না। আমরা নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। নির্বাচনের নামে প্রহসনের এই প্রক্রিয়ায় অংশ না নেয়ার জন্য দেশবাসীসহ সবাইকে আহ্বান জানান তিনি।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, একতরফাভাবে নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় তাদের আন্দোলন আগের চেয়ে নতুন পর্যায়ে উন্নীত হয়েছে। অবরোধ কর্মসূচির শেষে আরও কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

ফখরুল আরও বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা নিয়ে সংলাপের মাধ্যমে কোনো রাজনৈতিক সমঝোতা ছাড়াই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার মাধ্যমে সরকার গোটা দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছে। নিজেদের অনুগত রাজনৈতিক দলকে নিয়ে একটি প্রহসনের ও একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র বাস্তবায়ন করতেই এই তফসিল। নির্বাচন কমিশন এই তফসিল ঘোষণার মাধ্যমে নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে এবং এই কমিশন যে সরকারের তল্পিবাহক তা জাতির সামনে প্রমাণ হয়ে গেল। তিনি দ্রুত এই বিতর্কিত তফসিল স্থগিত করার আহ্বান জানান। একইসঙ্গে নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নিয়ে সবার অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করে দেশে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান রাখেন।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার রাজধানীতে ১৮ দলের বিক্ষোভ সমাবেশেই মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে সারাদেশ অচল করে দেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here