জিয়ানগরে আওয়ামী লীগ নেতার বাড়ি ভস্মীভূত জামায়াত-বিএনপির কাজ বলে দাবি

19

image_101180পিরোজপুরের জিয়ানগরে পুলিশ ক্যাম্পের ২’শ গজের মধ্যে রাজনৈতিক নাশকতায় আবারও পুড়ে ছাই হলো আওয়ামী লীগ নেতার বসতঘর। গত তিনদিন পূর্বে পিরোজপুর জেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয় ও দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর নিজ গ্রাম জিয়ানগর উপজেলার সাউদখালীতে আওয়ামী সমর্থকদের ৭টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান জ্বালিয়ে দেয়ার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই রবিবার এ ঘটনা ঘটলো।

বিএনপি ও জামায়াত-শিবির ক্যাডারদের সহিংসতায় নৃশংসভাবে কুপিয়ে যুবলীগ নেতাকে হত্যার পর প্রাণের ভয়ে দেড় মাস পূর্বে ঘর-বাড়ি, স্ত্রী-সন্তান ছেড়ে অনত্র চলে গেলেও নাশকতাকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেলনা জিয়ানগরের বালিপাড়া ইউনিয়নের ৪নং চরবলেশ্বর ওয়ার্ড আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু শেখের বসতঘরটি। রবিবার ঘটনার দিন সন্ধ্যায় পর বাড়ির সামনে বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের পর গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা পেট্রোল ঢেলে বসতঘরটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়ার পর মাত্র দু’শ গজ দূরে থাকা বালিপাড়া বাজারের পুলিশ ক্যাম্প সদস্যদের নজরে পড়ে। এসময় তারা আশপাশের লোকজনকে জানালে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। রাত দু’টার দিকে পিরোজপুর ফায়ার সার্ভিস টিম ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই বসতঘরটি সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে যায়। অগ্নিকাণ্ডের সময় কেউ না থাকায় বসত ঘর থেকে কোন মালামাল আসবাবপত্র রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে আবু শেখের ভাই মতলেব শেখ জানান।

ইন্দুরকানী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিএনপি-জামায়াতের অব্যাহত হামলার কারণে বালিপাড়া ইউনিয়ন থেকে গত আড়াই মাস ধরে আওয়ামী লীগের ৩ শতাধিক নেতাকর্মী এলাকা ছেড়ে চলে যায়। রবিবার রাতে তাদের (আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের) এলাকায় ফেরার খবর ছড়িয়ে পড়লে ১৮ দলের নেতাকর্মীরা সারারাত বিভিন্নস্থানে সশস্ত্র অবস্থান নেয় এবং অসংখ্য ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। হয়তো এলাকায় আতংক সৃস্টি করতে আবু শেখের ঘরটি জামায়াত-বিএনপির লোকজন আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে বলে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের দাবি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here