খালেদা জিয়া কী আরেকটি ২১ আগস্ট ঘটানোর চেষ্টা করছেন: প্রধানমন্ত্রী

15

জনতার নিউজ ঢাকা

খালেদা জিয়া কী আরেকটি ২১ আগস্ট ঘটানোর চেষ্টা করছেন: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘হাসিনাবিহীন নির্বাচনে’র নামে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া কী আরেকটি ২১ আগস্টের ঘটনা ঘটানোর ষড়যন্ত্র করছেন? অবশ্য ষড়যন্ত্রের ঘোট পাকানো ছাড়া তো তার সামনে আর কোন পথ নেই। উনি তো ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত ছাড়া আর কিছুই বোঝেন না। ২১ আগস্টের মতো আবারও গ্রেনেড হামলা করে আমাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছেন কিনা কে জানে। তবে শকুনের দোয়ায় কখনো গরু মরে না। রাখে আল্লাহ মারে কে। আল্লাহ যতদিন জীবন রেখেছেন, ততদিন দেশের মানুষের মঙ্গলের জন্য কাজ করে যাব। কোন ষড়যন্ত্র-চক্রান্তই আমাকে এ ব্যাপারে বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না ইনশাল্লাহ।’

গতকাল রবিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে প্রারম্ভিক বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সূচনা বক্তব্যের পর তার সভাপতিত্বে নেতৃবৃন্দের মধ্যে রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়। বৈঠকে আগামী ২৮ মার্চ পূর্ব নির্ধারিত আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন পিছিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন শেষে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আগামী ১০ জুলাই নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়। এক্ষেত্রে জাতীয় সম্মেলন সফল করতে বিভিন্ন উপ-কমিটিও গঠন করা হয়। বৈঠকের শুরুতেই প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুুর রহমানের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এছাড়া আগামী ২০২০ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনে দলের পক্ষ একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করা হয়। এখন থেকেই বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে রাষ্ট্র ও দলগতভাবে বঙ্গবন্ধুর স্মরণে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করার সিদ্ধান্ত হয়।

সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় কাউন্সিল পেছানোর ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, এখন সারাদেশে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন চলছে। নির্বাচনের সময় কাউন্সিল হলে তৃণমূল থেকে আমাদের কাউন্সিলর ও ডেলিগেটদের আসতে অসুবিধা হবে। অনেকে আসতে পারবেন না। এজন্য সম্মেলনের সময় কিছুটা পিছিয়ে সুবিধাজনক একটি তারিখ নির্ধারণ করতে হবে। আর সম্মেলনের আগে জাতীয় কমিটির একটি মিটিং ডাকা হবে। জাতীয় কমিটির সঙ্গে বৈঠকের পর আমরা উপদেষ্টামন্ডলীর সঙ্গে বৈঠক করবো। তারপর যৌথ বৈঠকের মাধ্যমে সিদ্ধান্তগুলো গঠনতন্ত্র ও ঘোষণাপত্রে অন্তর্ভূক্তির জন্য সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব চূড়ান্ত করা হবে। প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংগঠনের চরম দুর্দিনে বিশেষ করে ওয়ান ইলেভেনের সময় শক্তহাতে হাল ধরেছিলেন তিনি। উনি দলের হাল না ধরলে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসতো কি না সন্দেহ। আমি বিনা কারণে গ্রেফতারের সময় জিল্লুর রহমানকে আমি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করি। উনি সেই দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে গেছেন। আসলে তার মৃত্যুতে আমি একজন পারিবারিক অভিভাবককে হারিয়েছি।

বিএনপির সম্মেলনে খালেদা জিয়ার ‘ভিশন: ২০৩০’ ঘোষণা এবং মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার অঙ্গীকারের প্রতি ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন অনেকেই আমাদের নীতি ও ভিশন অনুসরণ করছে। বিএনপি নেত্রী বাংলাদেশ যে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে যাচ্ছে তা স্বীকার করেছেন। কিন্তু এটা যে আওয়ামী লীগের আমলেই সম্ভব হচ্ছে এটা স্বীকার করলে ভাল হতো।

পরিবেশবান্ধব ভবন নির্মাণ করতে হবে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জমির স্বল্পতা ও ভবিষ্যত্ জনসংখ্যার কথা মাথায় রেখে পরিবেশবান্ধব বহুতল ভবন নির্মাণের জন্য স্থপতিদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আমরা যা কিছু নির্মাণ করি না কেন, সেগুলোকে যেমন একদিকে হতে হবে টেকসই-স্থায়িত্বশীল ও পরিবেশবান্ধব, অন্যদিকে দৃষ্টিনন্দন। নান্দনিক বলেই মানুষ এখনও পুরনো রাজবাড়ি, মসজিদ, মন্দির দেখতে ছুটে যায়। গতকাল রবিবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের (আইএবি) নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি আরো বলেন, স্থাপত্য হলো একটি সভ্যতার মাপকাঠি। প্রাচীন সভ্যতাকে চেনা বা জানার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে স্থাপত্য শিল্প। আজকে আমরা যা কিছু নির্মাণ করছি, কয়েকশ বছর পর যদি এগুলো টিকে থাকে তাহলে এগুলো আমাদের সময়কে ধারণ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here