খালেদা জিয়া অবরুদ্ধ কি না জানতে চায় বিএনপি

22

image_98455বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গ্রেফতার নাকি গৃহবন্দী, এ বিষয়ে সরকারের মাধ্যমে স্পষ্ট করতে রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেছে বিএনপির সংসদীয় দলের প্রতিনিধিদল। আজ শুক্রবার বঙ্গবভনে রাষ্ট্রপতি এ্যডভোকেট আবদুল হামিদের সঙ্গে সাাতের পর বিরোধী দলের চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক জানান, রাষ্ট্রপতি এ ব্যাপারে সরকারের সঙ্গে কথা বলবেন বলে তাদের আশ্বস্ত করেছেন। ফারুক জানান, নির্বাচন নিয়ে তারা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কোনো কথা বলেননি। এ বিষয়ে কথা বলবে ১৮ দল। ১৮ দলের চলমান কর্মসূচি চলছে, চলবে। ফারুক বলেন, তারা রাষ্ট্রপতির কাছে মৌলিক অধিকার রার জন্য আবেদন জানিয়েছেন। মৌলিক অধিকার রার বিধান সংবিধানেই আছে বলে রাষ্ট্রপতি তাদের আশ্বাস দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি বলেছেন, এটি সব সরকারের রা করা উচিত। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাাতের পর প্রতিনিধিদলটি খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যাবে কি না, সাংবাদিকরা জানতে চাইলে ফারুক বলেন,তারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যাবেন।

এর আগে ফারুক সাংবাদিকদের বলেন, বিরোধদলীয় নেতার বাসা ঘিরে সরকার বালুর ট্রাক, জলকামান দিয়ে অবরোধ করে রেখেছে। তিনি গ্রেফতার নাকি গৃহবন্দী, তা স্পষ্ট করছে না। কোনো নেতাকে তার সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। তাকে দলীয় কার্যালয়ে যেতে দেয়া হচ্ছে না। বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ বলেন,এসব বিষয় রাষ্টপতিকে জানানো হয়েছে। রাষ্ট্রপতির মাধ্যমে আমরা জানতে চাই, বিরোধীদলীয় নেতা গ্রেফতার নাকি গৃহবন্দী।

এরআগে বেলা সাড়ে তিনটায় জয়নুল আবদিন ফারুকের নেতৃত্বে বিএনপিদলীয় সাংসদদের আট সদস্যের প্রতিনিধিদল বঙ্গভবনে যায় রাষ্টপতির সঙ্গে দেখা করতে। বিকেল পৌনে চারটা থেকে প্রায় ৪০ মিনিট ধরে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তাদের কথা হয়।

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক ছাড়া প্রতিনিধি দলে ছিলেন- দলীয় সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন, এ বি এম আশরাফ উদ্দিন নিজান, নাজিম উদ্দিন আহমেদ, হারুনুর রশিদ, নিলোফার চৌধুরী মনি, রেহানা আক্তার রানু, সৈয়দা আশিফা আশরাফী পাপিয়া ও রাশেদা বেগম হীরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে ফারুকের নেতৃত্বে আট সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল জাতীয় সংসদ ভবনে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সাথে দেখা করে একই বিষয়ে একটি স্মারকলিপি দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here