কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ১১ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ বিএনপির একক প্রার্থী চুড়ান্ত

18

জনতার নিউজ

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ১১ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ বিএনপির একক প্রার্থী চুড়ান্ত

প্রথম দফায় আগামী ২২ মার্চের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা মেনে একক প্রার্থী চুড়ান্ত করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আওয়ামীলীগ ও বিএনপি। ১৩ ইউনিয়নের এ উপজেলায় প্রথম দফায় ১১টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বাকী ইউনিয়ন দুটি যথাক্রমে চিথলিয়া ও ধুবইল ইউনিয়নে ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ  হওয়ার এখনো ২ বছর বাকী থাকায় ইউনিয়ন দুটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না। ১১ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা নেতাদের মতামত নিয়ে একক প্রার্থী চুড়ান্ত করতে রীতিমত উপজেলা আওয়ামীলীগ ও বিএনপির শীর্ষ নেতাদের ব্যাপক ঘাম ঝরাতে হয়েছে। তারপরও দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত একাধিক নেতা নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নেবার সমুহ সম্ভাবনা রয়েছে।

কেন্দ্রে যে নামের তালিকা পাঠানো হয়েছে সেই তালিকায় বর্তমান চেয়ারম্যানদের অনেকের ঠাঁই হয়েছে। কপাল পুড়েছে বেশ কয়েকজনের। তবে যেসব নেতার নাম মনোনীত করে পাঠানো হয়েছে তাদের সবাই আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দীর্ঘদিনের ত্যাগী নেতা। স্ব স্ব এলাকায় তারা বেশ জনপ্রিয়। এলাকার নেতা-কর্মীরাও তাদের পক্ষে প্রাথমিক রায় দিয়েছে।

মিরপুর উপজেলা ও কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে নির্বাচনী বর্ধিত সভায় উপস্থিত দলের নেতাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ১১ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের একক চুড়ান্ত প্রার্থীরা হলেনঃ-

সদরপুর ইউনিয়নঃ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রবিউল হকের নাম সুপারিশ করা হয়েছে। রবিউল হক এই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান।

আমলা ইউনিয়নঃ এই ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম মালিথার নাম সুপারিশ করা হয়েছে। সর্বশেষ নির্বাচনে অল্প ভোটের ব্যবধানে তিনি জামায়াতের ডাঃ রফিকুল ইসলামের কাছে পরাজিত হন।

কুর্শা ইউনিয়নঃ চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন দলের বেশ কয়েকজন নেতা। তৃণমুলের মতামতের ভিত্তিতে কুর্শা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নানের নাম সুপারিশ করা হয়েছে।

মালিহাদ ইউনিয়নঃ মালিহাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেনের নাম সুপারিশ করা হয়েছে।

ছাতিয়ান ইউনিয়নঃ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন বিশ্বাস।

বহলবাড়িয়া ইউনিয়নঃ এ ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক তৌহিদুল ইসলামকে বাদ দিয়ে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক সোহেল রানার নাম সুপারিশ করা হয়েছে।

তালবাড়িয়া ইউনিয়নঃ এই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান মিঠুকে বাদ দিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হান্নান মন্ডলকে প্রার্থী হিসেবে সুপারিশ করা হয়েছে।

ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নঃ ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে তালিকায় স্থান পেয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাজি আব্দুস সালাম।

আমবাড়িয়া ইউনিয়নঃ এ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আমবাড়ীয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল বারী টুটুল। তাকেই আবারো মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

বারুইপাড়া ইউনিয়নঃ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. শফিকুল ইসলাম মন্টু।

পোড়াদহ ইউনিয়নঃ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ারুজ্জামান বিশ্বাস মজনু।

অন্যদিকে বিএনপির সুপারিশকৃত কেন্দ্রে পাঠানো ১১ প্রার্থী হলেনঃ

বহলবাড়ীয়া ইউনিয়নঃ সাইফুল ইসলাম।

তালবাড়ীয়া ইউনিয়নঃ মাসুদুর রহমান বাদশা।

বারুইপাড়া ইউনিয়নঃ মুসুদুল হক মাসুদ।

ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নঃ খন্দকার টিপু সুলতান।

পোড়াদহ ইউনিয়নেঃ খন্দকার মেহেদী হাসান পলাশ।

ছাতিয়ান ইউনিয়নঃ সাবেক চেয়ারম্যান আনছার আলী।

আমলা ইউনিয়নঃ রওশন আলী।

সদরপুর ইউনিয়নঃ মোশারফ হোসেন মুছা।

মালিহাদ ইউনিয়নঃ নুর-এ-আলামীন বুলবুল।

কৃর্শা ইউনিয়নঃ মোঃ আলামীন।

আমবাড়ীয়া ইউনিয়নঃ লুৎফর রহমান সাবু ডাক্তার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here