কমিশনার আলীম হত্যা মামলায় ৮ জনের ফাঁসি

22

newঢাকার ৬২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার ও আওয়ামী লীগের নেতা হাজি মো. আলীম হত্যা মামলায় আটজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আখতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন। হত্যাকাণ্ডের প্রায় ১৮ বছর পর এই রায় ঘোষণা করা হয়।
মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিরা হলেন সাঈদ আহমদ, রশিদ আহমদ, ফরিদ আহমদ, মো হারুন, মো. সিরাজ, শিবলু, শওকত ও কামাল। আসামি সাঈদ, রশিদ ও ফরিদ সহোদর ভাই।
রায়ে বলা হয়, আসামিদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণে সক্ষম হওয়ায় প্রত্যেককে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হলো। একই সঙ্গে আদালত প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।
রায় ঘোষণার আগে জামিনে থাকা আট আসামির মধ্যে পাঁচজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আসামি শিবলু, শওকত ও কামাল আদালতে হাজির হননি। আদালত তাঁদের পলাতক দেখিয়ে রায় ঘোষণা করেন। এই তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। রায়ে বলা হয়, পলাতক আসামিরা গ্রেপ্তার অথবা আত্মসমর্পণ করার পর তাঁদের বিরুদ্ধে এই রায় কার্যকর হবে।
জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি বিকেলে মোটরসাইকেলে করে যাওয়ার পথে আজিমপুর রোডে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন আলীম। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। পরদিন নিহত ব্যক্তির ভাই মো. বদির উদ্দিন লালবাগ থানায় এই মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়। রাষ্ট্রপক্ষে এ মামলায় ১৮ জন সাক্ষীকে উপস্থাপন করা হয়।
রায় ঘোষণার পর নিহত ব্যক্তির ছেলে হাসিব উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনার কয়েক দিন আগে একটি চাঁদাবাজির ঘটনার সালিস করেন তাঁর বাবা আলীম, যা আসামিদের বিরুদ্ধে যায়। এর জের ধরেই তাঁর বাবাকে হত্যা করা হয়। তিনি রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন। আসামিপক্ষের আইনজীবী মহিউদ্দিন জানান, রায়ের অনুলিপি পাওয়ার পর উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here