এশীয় দেশগুলোতে অটিজম নিয়ন্ত্রণে নিজস্ব পদ্ধতি উদ্ভাবন জরুরি : সায়মা ওয়াজেদ

13

Saima+Hossain+Putul-1প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা এবং ‘অটিজম এন্ড নিউরো ডেভেলপমেন্ট ডিজাবেলিটি বাংলাদেশ’র উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপার্সন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন এশীয় দেশগুলোতে অটিজম নিয়ন্ত্রণে পাশ্চাত্যের মডিউল ও থেরাপির ওপর নির্ভরশীলতার পরিবর্তে নিজস্ব পদ্ধতি উদ্ভাবনের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। কয়েক বছর আগেও অটিস্টিক শিশুদের পরিবারকে ভিন্ন দৃষ্টিতে দেখা হতো উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে এ ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি এবং ভ্রান্ত ধারণা পরিবর্তনের প্রয়াস চলছে।
সম্প্রতি মালয়েশিয়া সফরকালে সেদেশের মন্ত্রীদের সংগে বৈঠককালে সায়মা ওয়াজেদ একথা বলেন।
সায়মা ওয়াজেদ ২১ এপ্রিল মালয়েশিয়ার নারী, পরিবার ও সম্প্রদায় উন্নয়ন মন্ত্রী এবং ২২ এপ্রিল স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাদের কার্যালয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন। মালয়েশিয়া বাংলাদেশের হাইকমিশনার এসব বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
সায়মা ওয়াজেদ বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে অটিস্টিক শিশুদের জন্য অটিজম ব্যবস্থাপনা ও শিক্ষার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সম্ভাবনা সম্পর্কে মতবিনিয়ম করেন। উভয় মন্ত্রী বাংলাদেশের সঙ্গে এ ব্যাপারে সহযোগিতায় আগ্রহ প্রকাশ করেন।
সায়মা ওয়াজেদ মালয়েশিয়ার পুত্রজায়ায় অটিজম সংক্রান্ত দু’দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সেমিনারে যোগদান উপলক্ষে সেখানে যান। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে তিনি সেমিনারে যোগ দেন।
অটিজম সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং স্থানীয় সম্প্রদায়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করার জন্য এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়। এর প্রতিপাদ্য ছিল- ‘অটিজম কোন দুঃখজনক ঘটনা নয়, বরং অজ্ঞতা’।
পারমাতা, নিউইয়র্ক ভিত্তিক অটিজম স্পিঙ্ এবং মালয়েশিয়ার কেবানসাং বিশ্ববিদ্যালয় যৌথভাবে এ সেমিনারের আয়োজন করে।
উল্লেখ্য, ‘পারমাতা’ একটি দাতব্য সংস্থা। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী দাতিন শ্রী রুশমা মনসুর এর পৃষ্ঠপোষক।
সুদান, শ্রীলংকা, কিরগিজ প্রজাতন্ত্র, সিঙ্গাপুর, আলবেনিয়া এবং মরক্কোর ফার্স্ট লেডিরা এতে যোগ দেন। যুক্তরাষ্ট্র, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা, অস্ট্রেলিয়া, চীন, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর ও ব্রুনাইসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ও অটিজম বিশেষজ্ঞরা বক্তা, প্যানেলিস্ট ও রিসোর্স পার্সন হিসেবে সেমিনারে অংশ নেন ।
মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী গত ২২ এপ্রিল এ সেমিনারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
সায়মা ওয়াজেদ সেমিনারে যোগদানের পাশাপাশি মালয়েশিয়ার ফাস্টলেডির দেয়া বিশাল আনুষ্ঠানিক নৈশভোজসহ বেশ কয়েকটি কর্মসূচিতে অংশ নেন। এসময় তিনি মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী এবং অটিজম বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে খোলামেলা আলোচনায় অংশ নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here