এমপি মাহবুবুর ও সাবেক মন্ত্রী রুহুল হককে দুদকে তলব

18

hoqপটুয়াখালী-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য সাবেক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মাহবুবুর রহমান এবং সাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হককে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আজ বুধবার দুদক থেকে তাদের কাছে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়। চিঠিতে মাহবুবুর রহমানকে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি এবং আ ফ ম রুহুল হককে ২৪ ফেব্রুয়ারি কমিশনে হাজির হতে বলা হয়েছে।

দুদক সূত্র জানিয়েছে—পটুয়াখালী-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য সাবেক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মাহবুবুর রহমানের নির্বাচন কমিশনে দেয়া হলফনামার তথ্য মতে গত পাঁচ বছরে তিনি ২০ একর জমি থেকে দুই হাজার ৮৬৫ একর জমির মালিক হয়েছেন। পাঁচ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র ছাড়া কোনো স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ না থাকা তার স্ত্রীর নামে এখন ১ কোটি ২৬ লাখ ৭১ হাজার টাকার সম্পদ রয়েছে। নিজের ৩৬ লাখ ৩৩ হাজার ১১২ টাকার স্থাবর সম্পদ ৫ বছরের ব্যবধানে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ২৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭২ টাকা। হলফনামায় দেয়া এ সব তথ্য যাছাই-বাছাই করে দেখছে দুদক। দুদকের উপপরিচালক খায়রুল হুদা তার সম্পদের অনুসন্ধান করছেন।

সূত্র আরো জানিয়েছে—জমাপড়া অভিযোগ অনুযায়ী ড. আ ফ ম রুহুল হকের ব্যাংক ব্যালেন্স গত পাঁচ বছরে বেড়েছে ১০ গুণ। ব্যাংক ব্যালেন্সের অধিকাংশ তার স্ত্রী ইলা হকের নামে। পাঁচ বছর আগে নির্বাচনী মাঠে নামার সময় রুহুল হক এবং তার স্ত্রীর নামে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত ছিল ৯২ লাখ ৩৬ হাজার ১০৮ টাকা। বর্তমানে তাদের ব্যাংক ব্যালেন্সের পরিমাণ ১০ কোটি ১৫ লাখ ৯৪ হাজার ৭৬৩ টাকা। ২০০৮ সালে স্ত্রী ইলা হকের নামে ব্যাংক ব্যালেন্স ছিল মাত্র ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৩০ টাকা। বর্তমানে ৭ কোটি ৫৩ লাখ ১১ হাজার ২৪০ টাকা। তার অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান করছেন দুদকের উপপরিচালক মির্জা জাহিদুল আলম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here