এখনো খালেদার সঙ্গে অর্থবহ সংলাপ হতে পারে

17

inu

এখনো যে সময় আছে, সে সময়ের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে অর্থবহ সংলাপের মাধ্যমে সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন সম্ভব বলে মনে করেন তথ্য ও সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। এর আগে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। পরে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন তাঁরা।

এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী ১০-১৫ দিন যে সময় আছে, এর ভেতরে খালেদা জিয়ার সঙ্গে অর্থবহ সংলাপের মধ্য দিয়ে নির্বাচনী সমাধান বের করা সম্ভব। এখনো আমরা মনে করি, নির্বাচনে বিরোধী দলের নেতা খালেদা জিয়ার অংশগ্রহণ করা উচিত। কারণ নির্বাচন হবে অংশগ্রহণমূলক।

হাসানুল হক ইনু বলেন, এককালীন কোনো সমাধান এবং পাঁচ বছর পরপর বাংলাদেশে নির্বাচন নিয়ে হট্টগোল, হইচই ঠিক নয়। একটা স্থায়ী সমাধান দরকার।

তথ্যমন্ত্রী আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমাদের উন্নয়ন, গণতন্ত্র ও সাংবিধানিক ধারা যেন অব্যাহত থাকে, সে বিষয়ে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে যুক্তরাষ্ট্র।’ তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র উভয় পক্ষই একটি স্থায়ী সমাধানের পক্ষে।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনা বলেন, নির্ভরযোগ্য কাউকে মধ্যস্থতার দায়িত্ব দিয়ে প্রধান দুই দলের মধ্যে গঠনমূলক সংলাপ অনুষ্ঠান এখন অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে জরুরি হয়ে পড়েছে।

মজীনা বলেন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় কোনো পক্ষের সহিংসতাই গ্রহণযোগ্য নয়। সব রাজনৈতিক দলের স্বাধীন মতামত প্রকাশের অধিকার রয়েছে। প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোকে অর্থবহ আলোচনার মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য পথ বের করার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের তাগিদের কথা জানিয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি, গণতান্ত্রিক শক্তি এবং অগণতান্ত্রিক শক্তিকে একপাল্ল­ায় মাপা হলে অগণতান্ত্রিক শক্তি উত্সাহিত হয়। খালেদা জিয়ার জঙ্গিবাদের সঙ্গ ত্যাগ, নাশকতা ও সন্ত্রাসের পথ পরিহার করা গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত দরকার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

দিগন্ত ও ইসলামিক টেলিভিশন এবং ‘আমার দেশ’ পত্রিকা নিয়ে মজীনার সঙ্গে আলোচনা হয়েছে জানিয়ে ইনু বলেন, গণমাধ্যমের ভূমিকা এবং আইসিটি আইন নিয়ে কথা হয়েছে। আর এ বিষয়ে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র একমত বলেও সাংবাদিকদের জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here