উপজেলা নির্বাচনে রেকর্ড সংখ্যক মনোনয়নপত্র দাখিল

26

5219c007739da-ECচতুর্থ উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপে সারা দেশে রেকর্ড সংখ্যক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। ৯৮টি উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ ও মহিলা) পদে ১ হাজার ৭৩২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। গতকাল শনিবার মনোনয়পত্র দাখিলের শেষ দিন এ সব মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়।

এ দিকে, আইন অনুযায়ী দলীয়ভাবে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হলেও রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যে মূলত হবে নির্বাচন। দলীয় হাইকমান্ডের নির্দেশে বিভিন্ন উপজেলায় পৃথকভাবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন প্রার্থীরা। নির্বাচন কেন্দ্র করে সারা দেশের উপজেলা-পর্যায়ে নির্বাচনের আবহ তৈরি হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনার মো. শাহ নেওয়াজ বলেন, ‘দেশের পরিস্থিতি এখন ভালোর দিকে। আইন-শৃঙ্খলা আগের চেয়ে ভালো। প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন হবে। সহিংসতা ছাড়াই আগামী উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।’

ইসির তথ্য অনুযায়ী—চেয়ারম্যান পদে সর্বনিম্ন ২ জন করে প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন নীলফামারীর সৈয়দপুর ও মেহেরপুর সদরে। চেয়ারম্যান পদে মাগুরার সদর ১৪ জন, সিলেটের জকিগঞ্জে ১৩ জন, বগুড়ার ধনুট, চট্টগ্রামের হাটহাজারীর, নেত্রকোনার দুর্গাপুর ও যশোরের অভয়নগরে ১২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ঢাকার নবাবগঞ্জে ১৪ জন, মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর, সুনামগঞ্জের দোয়ারা বাজার ১৩ জন, বগুড়ার ধনুট, সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ ও মাগুরার সদর ১২জন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ঢাকার দোহার ও সিলেটের জৈন্তাপুর ৭ জন করে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

নির্বাচন কমিশন-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন—এবার রেকর্ড সংখ্যক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মাত্র ৯৮ উপজেলায় প্রত্যাশার চেয়ে বেশি প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয়ার ফলে প্রার্থী সংখ্যা বেড়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশের ৪৮৭টির উপজেলা পরিষদের মধ্যে প্রথম ধাপে ১০২টির নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমেদ। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১০২টি উপজেলার মধ্যে ৯৮টি উপজেলায় নির্বাচন হচ্ছে। এর মধ্যে ৯৭টি উপজেলায় নির্বাচন হবে ১৯ ফেব্রুয়ারি। আর পীরগঞ্জের নির্বাচন হবে ২৪ ফেব্রুয়ারি। সীমানা জটিলতার কারণে রংপুর জেলার ৪টি উপজেলায় নির্বাচন হচ্ছে না। এগুলো হলো—রংপুর সদর, কাউনিয়া, গঙ্গাচরা ও পীরগাছা। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন ছিল শনিবার। মনোনয়ন বাছাই আজ সোমবার, প্রত্যাহারের শেষ সময় ৩ ফেব্রুয়ারি। ৪ ফেব্রুয়ারি প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। আইন অনুযায়ী প্রতীক বরাদ্দের আগে কোনো প্রার্থী প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবেন না। গত ২৩ জানুয়ারি ঘোষিত দ্বিতীয় ধাপের আরো ১১৭টি উপজেলার নির্বাচন হবে ২৭ ফেব্রুয়ারি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here