আমেরিকা ভুল করছে :অর্থমন্ত্রী

13

muhitবাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে ‘চাপ দিয়ে’ যুক্তরাষ্ট্র ভুল করছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। গতকাল শুক্রবার সিলেটের কুমারগাঁওয়ে ২৮ মেগাওয়াট ক্ষমতার বেসরকারি শাহজাহান উল্লাহ বিদ্যুত্ কেন্দ্রের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন তোলায় সরকার মধ্যবর্তী নির্বাচনের দিকে যাবে কিনা- এমন প্রশ্নে মুহিত বলেন, ‘শোনো, কতোগুলো বিষয় আছে। এই সরকার বৈধ সরকার, আমেরিকা এটা ভুল করছে, অন্যরা ভুল করছে।’ প্রসঙ্গত বাংলাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্র সিনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ক কমিটিতে এক শুনানিতে দেশটির সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়ার বলেন, ৫ জানুয়ারির ‘ত্রুটিপূর্ণ’ নির্বাচন বাংলাদেশকে অস্থিতিশীলতার ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই) পরিচালিত এক জরিপেও সম্প্রতি বলা হয়, ওই নির্বাচনের পর দেশ ভুল পথে এগোচ্ছে বলে ৫৯ শতাংশ বাংলাদেশি মনে করছেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি দুষ্টু বুদ্ধির জন্য পালিয়েছে। মানুষ ভোট দিয়েছে, আমরা নির্বাচিত হয়েছি।’ সংলাপের সম্ভাবনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা অফার করেছি বিএনপিকে, তোমরা আস, এইসব বোগাস কথাবার্তা বলো না যে তত্ত্বাবধায়ক সরকার চাই। ডোন্ট টক অ্যাবাউট ইট, ইফ ইউ আর সেনসেবল।’ কিন্তু বিএনপি যেভাবে এগোচ্ছে, তাতে সংলাপের ভবষ্যিত্ নিয়ে খুব বেশি আশাবাদী হতে পারছেন না মুহিত।

‘মধ্যবর্তী নির্বাচনের সুযোগ নেই’

আমাদের সিলেট অফিস জানায়, অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আরো বলেন বিএনপির প্রচারণায় জিএসপি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সঙ্গে অসদাচরণ করেছে। শর্ত পূরণের পরও যদি জিএসপি না দেয়া হয় তাহলে বুঝতে হবে এটা রাজনৈতিক কারণ। মন্ত্রী বলেন, বিএনপির প্ররোচণায় যুক্তরাষ্ট্রের পথে হাঁটছে যুক্তরাজ্যও। তাদের মনে রাখতে হবে এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত বৈধ সরকার। এখানে মধ্যবর্তী নির্বাচনের কোন সুযোগ নেই। মধ্যবর্তী নির্বাচনের জন্য ওকালতি না করতেও এই দুই দেশের প্রতি আহ্বান জানান মুহিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here