আত্মীয়স্বজনের তালিকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

16

PM-AL+Meeting

নিজের আত্মীয়স্বজনের একটি তালিকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই তালিকায় রয়েছেন তাঁর দুই ছেলে-মেয়ে, তাঁর বোন শেখ রেহানার তিন ছেলে-মেয়ে এবং তাঁদের দুই বোনের ছেলে-মেয়ে, জামাতারা। এর বাইরে আর কোনো আত্মীয়স্বজন নেই বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার বালুর মাঠে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৭৫ সালে আমরা দুই বোন আমি ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় ঘাতকদের হাত থেকে রক্ষা পাই। আমার ও শেখ রেহানার ছেলে-মেয়ে, নাতি-নাতনি এবং জামাতারা আমার আত্মীয়। এর বাইরে আমার কোনো আত্মীয় নেই।’ একই দিন সদরপুর স্টেডিয়ামের নির্বাচনী সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার দুই ছেলে-মেয়ে জয় ও পুতুল, শেখ রেহানার তিন ছেলে-মেয়ে ববি, টিউলিপ ও প্রিয়ন্তি এবং তাদের ছেলে-মেয়ের বাইরে আমার কোনো আত্মীয় নেই।’

ফরিদপুর-৪ (ভাঙ্গা, সদরপুর চরভদ্রাসন) সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হলেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ওই আসনে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন চৌধুরী। তাঁর প্রতীক আনারস। নিক্সন চৌধুরী নিজেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতি হিসেবে পরিচয় দেন বলে জানান এলাকাবাসী। এলাকাবাসী জানান, তিনি বঙ্গবন্ধুর ভাগনে ইলিয়াস চৌধুরীর ছেলে বলে পরিচয় দেন। এ ব্যাপারে নিক্সন চৌধুরীর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।

ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন বলেন, নিক্সন চৌধুরী নিজেকে শেখ হাসিনার আত্মীয় পরিচয় দেওয়ায় ভোটারদের মনে সংশয় ও সন্দেহ দেখা দিয়েছে। এটি দূর করতেই শেখ হাসিনা নির্বাচনী দুটি জনসভায় তাঁর আত্মীয়দের ব্যাপারটি পরিষ্কার করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here