J News

২ বিদেশি খুনের ঘটনায় ‘শুটার জুয়েল’ আটক!

গুলশানে ইতালীয় নাগরিক তাভেল্লা চেজার ও রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি খুনের ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসাবে কিলার গ্রুপের এক সদস্যকে গোয়েন্দা পুলিশ আটক করেছে। রাজধানীর বাড্ডা এলাকা থেকে ‘শুটার জুয়েল’কে আটক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তবে তাকে দুই বিদেশি নাগরিক খুনের ঘটনায় আটক করা হয়েছে কি না—এমন তথ্য ডিএমপির কোনো কর্মকর্তা নিশ্চিত করেননি। গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন—হত্যার ঘটনা তদন্তে অনেককেই আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মিলেছে। কিলার গ্রুপের একটি সম্ভাব্য তালিকা তারা হাতে পেয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ইতালীয় নাগরিক খুনের ঘটনা তদন্ত করছে গোয়েন্দা পুলিশ এ পর্যন্ত রুবেল, আলমগীর, লায়েজ উদ্দিন ও রাসেলসহ ১০/১২ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এরা গুলশান, বাড্ডা ও মহাখালী এলাকায় ভাড়াটিয়া কিলার গ্রুপের সদস্য।

ঘটনা তদন্ত সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা দাবি করেছেন, সিআইডিতে ব্যালাস্টিক টেস্ট রিপোর্ট হাতে পাওয়া গেছে। রিপোর্টে ইতালীয় নাগরিক খুনে সেভেন পয়েন্ট সিক্স ফাইভ ক্ষমতার পিস্তল ব্যবহার করা হয়েছিল। তিনি আরো জানান—ডিবিতে সম্ভাব্য কিলার গ্রুপের যেসব সদস্য আটক আছে, তাদের কাছ থেকে এ ধরণের আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহারের তথ্য পাওয়া গেছে। এমনকি তাদের মধ্যে কেউ কেউ এ হত্যায় জড়িত থাকতে পারে।

ডিবির একটি সূত্র জানায়—বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ বাড্ডা শিমুল তুলা বাজার এলাকা থেকে ডিবির একটি টিম জুয়েলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। জুয়েলের বাবার নাম সোহরাব। শিমুল তুলা বাজারে তার বাড়ি। অভিযোগ রয়েছে—বাড্ডা ও গুলশান এলাকায় ভাড়ায় কিলিং মিশনে অংশ নেয় জুয়েল। কয়েক বছর আগে বাড্ডা এলাকার অন্যতম সন্ত্রাসী হীরণকে খুনের মধ্য দিয়ে জুয়েল আলোচনা আসে।

ডিবি পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান—জুয়েলের সাথে ইতালীয় ও জাপানি নাগরিক খুনে কোনো সংশ্লিষ্টতা আছে কি না, তা জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here