রাজধানীর হাজারীবাগের বালুরমাঠ বউবাজার বস্তিতে আগুনে ৪ শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এছাড়া সোনারগাঁও হোটেলে আগুন লাগলেও বড় ধরনের কোনো ক্ষতি হয়নি। উত্তরার দক্ষিণখানে আগুনে পুড়েছে একটি ওয়াশিং প্ল্যান্টের মালামাল। পুরান ঢাকার ইসলামবাগের বাগানবাড়িতে আগুন লেগে প্লাস্টিক সামগ্রীর চারটি গুদাম পুড়ে গেছে। তবে এসব ঘটনায় কোনো হতাহত হয়নি। গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে এসব অগ্নিকাণ্ড হয়।
হাজারীবাগ বস্তিতে আগুন: ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ জানায়, বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে হাজারীবাগের বালুরমাঠ বউবাজার বস্তিতে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফায়ার ব্রিগেডের উপ-পরিচালক ভরত চন্দ্র বিশ্বাস মানবকণ্ঠকে জানান, আগুনে বস্তির চারশ’ থেকে সাড়ে চারশ’ ঘর পুড়ে গেছে। তবে হতাহত হওয়ার কোনো খবর পাওয়া যায়নি। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে রান্নার চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত। এখন পর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা যায়নি। জেলা প্রশাসন থেকে ক্ষতিগ্রস্ত বস্তিবাসীকে সহায়তার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির কাজ চলছে। তবে ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ২ হাজার বস্তিবাসী গত দুদিন ধরে খোলা আকাশের নিচে অর্ধাহারে-অনাহারে রয়েছেন। একই বস্তিতে গত বছরের ডিসেম্বরেও আগুন লেগে কয়েকজন হতাহত হয়েছিলেন।
হোটেল সোনারগাঁওয়ে আগুন: এদিকে বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে পাঁচ তারকা হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও এর দ্বিতীয় তলায় মেশিন রুমে আগুন ধরে। অ্যাডজাস্ট ফ্যানের অতিরিক্ত তাপে এ আগুনের সূত্রপাত হয় বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ। আগুনে মেশিনসহ কিছু জিনিসপত্র পুড়ে গেলেও বড় ধরনের কোনো ক্ষতি হয়নি।
প্লাস্টিক গুদামে আগুন: পুরান ঢাকার ইসলামবাগের বাগানবাড়িতে প্লাস্টিক সামগ্রীর গুদামে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আগুন লাগে। এতে চারটি গুদাম ঘর পুড়ে যায়। অগ্নিনির্বাপক বাহিনীর ৬টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। এতে প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
ওয়াশিং প্ল্যান্টে আগুন: এছাড়া উত্তরার দক্ষিণ খান গার্লস স্কুল রোডে বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে বৈশাখী ওয়াশিং প্ল্যান্ট নামে একটি কারখানায় আগুন লাগে। এতে প্ল্যান্টের মেশিনসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে যায়। টঙ্গী ফয়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আগুনে প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

হাজারীবাগে বস্তিতে আগুনে ৪ শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই
হাজারীবাগে বস্তিতে আগুনে ৪ শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here