খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডের প্রতিবাদে প্রথম দিন বিক্ষোভ করতে ঢাকার রাস্তায় নেমেই পুলিশের মার খেয়েছিলেন বিএনপির কর্মীরা। গতকাল শনিবার দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচির প্রতিবাদ সভা করতেই পারেনি। তার আগেই মিছিল নিয়ে বের হলে তাঁদের ধাওয়া দিয়ে ও লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ। সেখান থেকে কয়েকজনকে আটক করা হয়।

ঢাকার মতো অনেক জেলায়ই পুলিশের বাধার কারণে এই কর্মসূচি পালন করতে পারেনি বিএনপি। আটক করা হয়েছে শতাধিক জনকে। কিছু কিছু স্থানে ঝটিকা মিছিল ও পুলিশ বেষ্টনীতে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে তারা।

এদিকে গতকাল নতুন করে তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। কর্মসূচির মধ্যে আছে কাল সোমবার সারা দেশে মানববন্ধন, মঙ্গলবার অবস্থান, বুধবার সকাল নয়টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত অনশন। গতকাল বিকেলে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব ‍রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, অবস্থান কর্মসূচি হবে এক ঘণ্টা। ঢাকার এই কর্মসূচির সময় ও স্থান পরে জানানো হবে। জেলাগুলো সুবিধামতো সময়ে কর্মসূচি পালন করবে।

‍রুহুল কবির রিজভী বলেন, গতকাল কর্মসূচি থেকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহসভাপতি নবী উল্লাহ, সাবেক যুবদল নেতা মিজানুর রহমান, অলিউদ্দিনসহ ৫০ জনকে আটক করে পুলিশ। এ ছাড়া নারায়ণগঞ্জে ১৩ জন, নেত্রকোনায় ৫ জন, পিরোজপুরে ৩ জন, টাঙ্গাইলে ৬ জন, ফেনীতে ২ জন, কুমিল্লায় ১১ জন, নাটোরে ১৫ জন, ভোলায় ১ জন, নড়াইলে ১৬ জন, চট্টগ্রাম উত্তর ও গাইবান্ধায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রিজভীর দাবি, গত ৩০ জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত সারা দেশে বিএনপির ৪ হাজার ২০০ জনের বেশি নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here