দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় বর্তমান ৪৮ জন সাংসদ মনোনয়ন পাননি। এরমধ্যে সাবেক ও বর্তমান চারজন মন্ত্রী রয়েছেন। তাঁরা হলেন বর্তমান পরিকল্পনা মন্ত্রী একে খন্দকার, সাবেক মত্স্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী আবদুল লতিফ বিশ্বাস, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার, সাবেক বিদ্যুত্ প্রতিমন্ত্রী এনামূল হক। তবে বাদ পড়া মন্ত্রীদের তালিকায় সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনকে মন্ত্রীদের তালিকা ধরা হয়নি।

বাদ পড়লেন যাঁরা— দিনাজপুর-৬ আজিজুল হক (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. শিবলী সাদিক), রংপুর-৬ আবুল কালাম আজাদ (মনোনয়ন পেয়েছেন শেখ হাসিনা)।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ এনামুল হক (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. গোলাম রব্বানী), চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ জিয়াউর রহমান (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস), রাজশাহী-৩ মেরাজউদ্দিন মোল্লা (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. আয়েন উদ্দিন), নাটোর-২ আহাদ আলী সরকার(শফিকুল ইসলাম শিমুল), সিরাজগঞ্জ-১, তানভীর শাকিল জয় (মনোনয়ন পেয়েছেন মোহাম্মদ নাসিম), সিরাজগঞ্জ-৪ শফিকুল ইসলাম (মনোনয়ন পেয়েছেন তানভীর ইমাম), সিরাজগঞ্জ-৫ আবদুল লতিফ বিশ্বাস (মনোনয়ন পেয়েছেন আব্দুল মজিদ মন্ডল), সিরাজগঞ্জ-৬ চয়ন ইসলাম(মনোনয়ন পেয়েছেন মো. হাসিবুর রহমান খান স্বপন), পাবনা-২ একে খন্দকার (মনোনয়ন পেয়েছেন খন্দকার আজিজুল হক আরজু),
মেহেরপুর-১ জয়নাল আবেদিন (মনোনয়ন পেয়েছেন ফরহাদ হোসেন দোদুল), কুষ্টিয়া-৩ রশীদুজ্জামান (মনোনয়ন পেয়েছেন মাহবুব উল আলম হানিফ/ ডা. এ এফ এম আমিনুল হক), কুষ্টিয়া-৪ সুলতানা তরুণ (মনোনয়ন পেয়েছেন আব্দুর রউফ), ঝিনাইদহ-৩ শফিকুল আজম খান (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. নবী নেওয়াজ/সাজ্জাতুয্ জুম্মা) ঝিনাইদহ-৪ আবদুল মান্নান (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. আনোয়ারুল আজীম আনার) যশোর-২ মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ (মনিরুল ইসলাম), যশোর-৩ মনোনয়ন পেয়েছেন কাজী নাবিল আহমেদ (খালেদুর রহমান), যশোর-৬ শেখ আবদুল ওয়াহাব (মনোনয়ন পেয়েছেন ইসমত আরা সাদেক) নড়াইল-২ এস কে আবু বাকের (মনোনয়ন পেয়েছেন এস এম আসিফুর রহমান) বাগেরহাট-৩ হাবিবুন্নাহার খালেক(মনোনয়ন পেয়েছেন তালুকদার আব্দুল খালেক), খুলনা-১ ননী গোপাল মণ্ডল (মনোননয় পেয়েছেন পঞ্চানন বিশ্বাস) খুলনা-৪ মোল্লা জালাল উদ্দিন(মনোনয়ন পেয়েছেন এস এম মোস্তফা রশিদী সুজা), খুলনা-৬ সোহরাব আলী সানা (মনোনয়ন পেয়েছেন শেখ মো. নুরুল হক), সাতক্ষীরা-১ শেখ মুজিবুর রহমান (মনোনয়ন পেয়েছেন শেখ নুরুল ইসলাম), পটুয়াখালী-৩ গোলাম মাওলা রনি (মনোনয়ন পেয়েছেন আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন), বরিশাল-১ তালুকদার ইউনুস (মনোনয়ন পেয়েছেন আবুল হাসনাত আব্দুল¬াহ), পিরোজপুর-২ শাহ আলম (মনোনয়ন পেয়েছেন ইসহাক আলী খান পান্না), জামালপুর-৪ মুরাদ হাসান (মনোনয়ন পেয়েছেন মওলানা মো. নুরুল ইসলাম) ময়মনসিংহ-২ হায়াতোর রহমান খান মনোনয়ন পেয়েছেন শরীফ আহমেদ) ময়মনসিংহ-১০ গিয়াসউদ্দিন (মনোনয়ন পেয়েছেন ফাহ্মী গোলন্দাজ পাভেল), নেত্রকোনা-১ মোস্তাক আহমেদ রুহি (মনোনয়ন পেয়েছেন ছবি বিশ্বাস) নেত্রকোনা-২ আশরাফ আলী খান খসরু (মনোনয়ন পেয়েছেন আরিফ খান জয়), নেত্রকোনা-৩ মনজুর কাদের কোরাইশি (মনোনয়ন পেয়েছেন ইফতিকার উদ্দিন তালুকদার পিন্টু) কিশোরগঞ্জ-২ ডা. এম এ মান্নান (মনোনয়ন পেয়েছেন মো. সোহরাব উদ্দিন), মানিকগঞ্জ-১ এবিএম আনোয়ারুল হক (মনোনয়ন পেয়েছেন এ এম নাঈমুর রহমান দুর্জয়), মুন্সিগঞ্জ-৩ ইদরিস আলী (মনোনয়ন পেয়েছেন মৃণাল কান্তি দাস, ঢাকা-১৯ তৌহিদ মুরাদ জং (মনোনয়ন পেয়েছেন ডা. মো. এনামুর রহমান) নারায়ণগঞ্জ-৩ আবদুল্লাহ আল কায়সার (মনোনয়ন পেয়েছেন মোশাররফ হোসেন) নারায়ণগঞ্জ-৪ সারাহ বেগম কবরী (মনোনয়ন পেয়েছেন শামীম ওসমান) ফরিদপুর-৪ নিলুফার জাফরউল্লাহ (মনোনয়ন পেয়েছেন কাজী জাফর উল¬াহ) মাদারীপুর-৩ আবুল হোসেন (মনোনয়ন পেয়েছেন আ. ফ. ম বাহাউদ্দিন নাছিম) সুনামগঞ্জ-৪ মতিউর রহমান (মনোনয়ন পেয়েছেন ব্যারিস্টার মো. এনামুল কবীর ইমন) সিলেট-৫ হাফিজ আহমেদ মজুমদার (মনোনয়ন পেয়েছেন মাসুক উদ্দিন আহমদ), হবিগঞ্জ-৪ এনামুল হক (মনোনয়ন পেয়েছেন মাহবুব আলী), ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ শাহ আলম (মনোনয়ন পেয়েছেন আনিসুল হক) চাঁদপুর-২ রফিকুল ইসলাম (মনোনয়ন পেয়েছেন মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী) এবং চট্টগ্রাম-৪ এবি এম আবুল কাশেম (মনোনয়ন পেয়েছেন দিদারুল আল)।

মনোনয়ন পেলেন তারাকারও

আওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকায় স্থান পেয়েছেন বেশ কয়েকজন তারকা। জাতীয় ক্রিকেট ও ফুটবল দলের সাবেক দুই অধিনায়ক মনোনয়ন পেয়েছেন। মানিকগঞ্জ ১ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক নাইমুর রহমান দূর্জয়। নবম সংসদের সাংসদ এ বি এম আনোয়ারুল হকের পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন দূর্জয়। জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক আরিফ খান জয় পেয়েছেন নেত্রকোনা ২ আসনে। জয়ের জন্য জায়গা ছেড়ে দিতে হয়েছে সাংসদ আশরাফ আলী খান খসরুকে।
টিভি তারকা আসাদুজ্জামান নুর এবারও মনোনয়ন পেয়েছেন নীলফামারি ২ আসন থেকে। তিনি এই আসনের বর্তমান সাংসদ। সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ কণ্ঠতারকা মমতাজ বেগম সরাসরি নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি লড়বেন মানিকগঞ্জ ২ আসনে।
এই দুই তারকা মনোনয়ন দৌড়ে জিতলেও মনোনয়ন পেলেন না নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের বর্তমান সাংসদ কবরী সারোয়ার। নবম সংসদে সরাসরি নির্বাচন করে বিজয়ী এই চলচ্চিত্র তারকার পরিবর্তে আওয়ামীলীগ মনোনয়ন দিয়েছে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলগের বিতর্কিত নেতা শামীম ওসমানকে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here