Mojinaবাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লি¬উ মজীনা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র কোন ধরনের সহিংসতা সমর্থন করে না। এটি গণতান্ত্রিক ধারার সঙ্গে যায় না, অবশ্যই এ ধরনের ঘটনা বন্ধ করতে হবে। বাংলাদেশে একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে গঠনমূলক সংলাপ জরুরি যদিও অনেক দেরি হয়ে যাচ্ছে। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর সেতু ভবনে যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে সাক্ষাত্ শেষে সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন তিনি।

যোগাযোগমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত্কালে বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা, পদ্মা সেতু ও দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলেও জানান তিনি। এক প্রশ্নের জবাবে মজীনা বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে দশম না একাদশ নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হবে তা তারাই ঠিক করবেন। তবে দলগুলোকেই এ বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছাতে হবে। তাহলে অনেক কিছু সম্ভব হতে পারে। তিনি বলেন, অন্যান্য সময়ের চেয়ে এখনই দুই দলের মধ্যে সংলাপের প্রয়োজনটা বেশি। এর মধ্য দিয়ে এমন একটি নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব যা বাংলাদেশের জনগণের চোখে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য হবে।

ড্যান মজীনা বলেন, তার দেশ সহিংসতাকে সমর্থন করে না। পাশাপাশি সব রাজনৈতিক দল যেন নির্বিঘ্নে তাদের কর্মসূচি পালন করতে পারে সে বিষয়েও সরকারের হস্তক্ষেপ প্রত্যাশা করেন তিনি। বিরোধী দলের টানা অবরোধে ব্যবসা খাতে প্রভাব বিষয়ে তিনি বলেন, সোনার বাংলা গড়তে হলে ব্যবসা খাত নিয়ে ভাবতে হবে। তাহলেই বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবে। তবে বাংলাদেশের এই বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে এটি সম্ভব নয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বিরাজমান রাজনৈতিক সমস্যা সমাধানে সংলাপ ও সমঝোতার ওপর জোর দিচ্ছে। তারা বাংলাদেশে সবার অংশগ্রহণে একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চায়। নির্বাচন নিয়ে সমস্যার সমাধান আমাদেরকেই করতে হবে। তবে এখন সংলাপের আর সুযোগ নেই।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here