PM-New

বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ার পারসন খালেদা জিয়াকে হরতাল কর্মসূচি না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘আমি বিরোধীদলীয় নেত্রীকে অনুরোধ করবো শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা ও পরীক্ষার বিষয়টি বিবেচনা করে আপনি হরতাল প্রত্যাহার করুন।’ তিনি বলেন, ‘আমি জানি না, বিরোধী দলীয় নেতা আমার এই অনুরোধ রাখবেন কি না। কারণ উনি তো সবকিছুতেই না বলেন।’

বৃহস্পতিবার বিকালে গাজীপুর সদরে চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি কি আমার কথা শুনবেন? তিনি তো কিছুই শোনেন না, বোঝেন না। তিনি নিজেও একবার মেট্রিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন কিন্তু তিনি উর্দু আর অংক ছাড়া সব বিষয়ে ফেল করেছিলেন। তাই পরীক্ষা আসলেই হরতাল উনি হরতাল দেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘আপনাদের ধন্যবাদ আমাদের ভোট দিয়ে ক্ষমতায় নিয়ে আসার জন্য। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য। আমরা ক্ষমতায় আসার পর এদেশের হাজার হাজার পোশাক শ্রমিকের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করেছি। পোশাক শ্রমিকদের নূন্যতম বেতন ১৬ শত টাকা থেকে তিন হাজার টাকায় উন্নীত করেছি। আগামীতে ক্ষমতায় আসলে পোশাক শ্রমিকদের বেতন আবারো বাড়ানো হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যখনি ক্ষমতায় আসি বিদ্যুতের উত্পাদন বাড়াই। আর বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশ পিছিয়ে পড়ে। খাম্বা লিমিটেডের নামে বিদ্যুতের টাকা লুটপাট করেছেন ওনার ছেলে আর তত্কালিন মন্ত্রীরা। খাম্বাগুলো এখনো রাস্তাঘাটে পড়ে আছে কিন্তু দেশের মানুষ বিদ্যুত্ পায়নি। তারা দেশের জনগনের টাকা লুটপাট করেছেন।’

এর আগে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে করে প্রধানমন্ত্রী গাজীপুরের ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট মাঠে অবতরণ করেন। সেখান থেকে দুপুর ২টায় গাজীপুরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ মাঠে যান।

সেখানে প্রায় ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ২১টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক, ১২১ কোটি টাকা ব্যয়ে নবীনগর চন্দ্রা লেনের মহাসড়ক উদ্বোধন করেন।

এছাড়া তিনি ২২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ২১ দশমিক ১ কিলোমিটার মেট্রোরেল উদ্বোধন করেন। এতে ১৬টি স্টেশন থাকবে যাতে প্রতিঘণ্টায় উভয়দিকে ৬০ হাজার যাত্রী পরিবহন করতে পারবে। ২ হাজার ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে বিমানবন্দর থেকে গাজীপুর পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার বাস র্যাপিড ট্রানজিট প্রকল্প, ২৭ হাজার ৮শ ৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪ লেন বিশিষ্ট জয়দেবপুর-টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা পর্যন্ত ৭০ কিলোমিটার সড়কের ভিত্তি ফলকসহ প্রায় ৩৫ হাজার কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তি ফলকের উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী।

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী ভাষণ দেন।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here