nancynews

দেশের অন্যতম জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সী ঘুমের বড়ি খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। আজ শনিবার নেত্রকোনার নিজ বাসায় তিনি এ চেষ্টা চালান। ঘটনা জেনে নেত্রকোনার স্থানীয় লোকজন প্রথমে তাকে নেত্রকোনা হাসপাতালে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে। ডাক্তার বলছেন বর্তমানে তিনি আশংকা মুক্ত।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত শুক্রবারও ন্যান্সি ঘুমের বড়ি খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন। এ কারণে তাঁকে শুক্রবারও নেত্রকোনার হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল।

ন্যান্সীর পারিবারিক সূত্র জানায়, তাদের বাসা নেত্রকোনা শহরের পৌরসভার গারা এলাকায়। বাসাটি প্রায় সময়েই তালাবদ্ধই থাকে। স্থানীয় একজন কেয়ারটেকার বাসাটি দেখভাল করেন। ন্যান্সী মাঝে মাঝে এখানে এসে থাকে। তবে ন্যান্সী এবার কখন কিভাবে কার সাথে এসেছিল বা কী ঘটনায় তার এমন আত্মহত্যার চেষ্টা তা স্থানীয় কেউই বলতে পারেননি।
নেত্রকোনার একাধিক সূত্র জানায়, গত শুক্রবার ঘুমের বড়ি খাওয়ার পর ন্যান্সীকে নেত্রকোনা হাসপাতালে নেওয়া হয়। এরপর তিনি বাসায় ফিরে আসেন। আজ শনিবার আবার তিনি আরও বেশি ঘুমের বড়ি খান। তখণ তাকে সন্ধ্যার দিকে নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে নেয়া হলেও কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ন্যান্সীকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

মযমনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা: জাকির হোসেন বলেন, ন্যান্সী আশংকা মুক্ত। তিনি বলেন ন্যান্সি প্রায় ৬০টির মতো ঘুমের বড়ি খেয়েছে বলে তারা জেনেছেন

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here