libiaলিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে লিবিয়ান মিলিশিয়া বাহিনী ও স্থানীয় অস্ত্রধারীদের যুদ্ধে কমপক্ষে ৩২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ৪০০ জন। স্থানীয় সময় শুক্রবার এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সূত্র : রয়টার্স।

ঘারঘুর বিগ্রেডের ঘাঁটির সামনে পাঁচশর বেশি পোস্টার নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শনকালে ঘাঁটি থেকে বিমান বিধ্বংসী কামান থেকে গোলাবর্ষণ করা হয়। এসময় তারা ‘আমরা সশস্ত্র মিলিশিয়া চাই না’ বলে স্লোগান দিচ্ছিলেন। এ সময় তারা সাদা পতাকা বহন করছিলেন। কিন্তু হামলার পর তারা সেখান থেকে পালিয়ে যান। এরপর তারা ভারী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ফিরে আসেন। এই যুদ্ধ সকাল পর্যন্ত চলছিল। এ সময় রকেটচালিত গ্রেনেডও ব্যবহার করা হয়।

ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী আলি জেইদান অবিলম্বে সব সশস্ত্র গোষ্ঠীকে ত্রিপোলি ছাড়ার নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর বাইরে কারো কাছে অস্ত্র থাকাটা ভয়ঙ্কর। অবিলম্বে সব সশস্ত্র গোষ্ঠীকে ত্রিপোলি ত্যাগ করতে হবে।’

গাদ্দাফির পতনের দুই বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পরও যেসব বিদ্রোহীরা তাদের অস্ত্র সমর্পন করেনি তাদেরকে নিয়নাত্রণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী আলী জেইদান।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here