কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে ফের যুবক খুনের ঘটনা ঘটেছে। নিহত যুবক হাকিমকে (৩০) হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে আরেক রোহিঙ্গা যুবক। এ খুনের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ১ যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি ৪ ব্লকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মো. হাকিম একই ব্লকের নূর মোহাম্মদের ছেলে।

পুলিশ জানিয়েছে, মো. হাকিমের ২ স্ত্রী। একজন বান্দরবান ও অন্যজন কুতুপালং ক্যাম্পে থাকে। বান্দরবানে থাকা স্ত্রী ১৫ মার্চ সন্তানদের দেখতে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আসে। এ সময় একই ব্লকের রাশেদ উল্লাহর ছেলে মো. রফিক তার পরিচয় জানতে চায়। এনিয়ে ২ পরিবারের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির জের ধরে গতকাল ভোরে মো. রফিক হাতুড়ি দিয়ে হাকিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারাত্মক আঘাত করে। এতে হাকিম গুরুতর আহত হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। ঘটনার পরপরই খুনি রফিক পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে ওই ব্লকের মাঝি শামসুকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরাজুল হক টুটুল বলেন, হত্যার সঙ্গে জড়িত মূল আসামিকে গ্রেফতার ও আসল রহস্য উদঘাটনের জন্য পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

শেয়ার করুন
  • 12
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here