ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার ঘাটিয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪ ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় মহিলাসহ তিন অপহরণকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

স্কুল সূত্র জানায়, গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে সদর উপজেলার বরিশল গ্রামের ৪স্কুল ছাত্রী ঘটিয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। এ সময় অপহরণকারীরা তাদের কৌশলে সিএনজিচালিত অটোরিকসায় তুলে নেয়। স্কুলছাত্রী লিমা অপহরণকারীদের হাত থেকে ছুটে যেতে অটোরিকসা থেকে লাফ দেয়। এ সময় এলাকার লোকজন মহিলাসহ ৩ অপহরণকারীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

অপহরণের শিকার ছাত্রীরা হচ্ছে ঘাটিয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রী লিমা আক্তার ও সাদিয়া আক্তার, তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী শান্ত ও জান্নাত।
অসুস্থ অবস্থায় লিমাকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

আটক অপহরনকারীরা হচ্ছে, সদর উপজেলার রাধিকা গ্রামের দারগ আলীর ছেলে হিরন মিয়া (২০), আবির খানের ছেলে শরিফ খান (২২) এবং নরসিংসার গ্রামের তামান্না আক্তার (২০)।

ঘাটিয়ারা গ্রামের জাহেদ মিয়া বলেন লিমা চলন্ত অটোরিকসা থেকে লাফ দিয়ে পড়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখে পিছনে থাকা অটোরিকসা চালক কবির মিয়া তার অটোরিকসা নিয়ে অপহরনকারীদের অটোরিকসাটির সামনে গিয়ে অবরোধ করে। পরে এলাকার লোকজন স্কুল শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে অপহরণকারীসহ স্কুলে নিয়ে যায়। পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ অপহরণকারীদের থানায় নিয়ে যায়।

ঘাটিয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাদিয়া আফরিন বলেন,  পুলিশের সামনে সাকিলা, শান্ত ও জান্নাত বলেছে তাদের স্কুলে নামিয়ে দেওয়া হবে বলে জোর করে অটোরিকসায় উঠিয়ে নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু অটোরিকসাটি স্কুলের সামনে আসার পর তাদেরকে না নামিয়ে চলে যেতে থাকে। তখন লিমা অটোরিকসা থেকে লাফিয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার বনিক, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবদুস সামাদ আকন্দ ও উপজেলা সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জহিরুল ইসলাম লিমাকে দেখতে সদর হাসপাতালে যান।

এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার বনিক বলেন, জেলা প্রশাসক ও প্রাথমিক শিক্ষা অফিস অসুস্থ লিমা আক্তারের চিকিৎসার দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে। সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীর হোসেন বলেন, ৩ অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে। তদন্তক্রমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন
  • 9
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here