J News
যে ধর্ম মানে না,  দেশ তারও : এ বি এম খায়রুল

যে ধর্ম মানেও না,  দেশটি তারও আল্লাহ কিন্তু তাকেও খাওয়াচ্ছেন, পরাচ্ছেন, প্রতিপালন করছেন-  সে কথাগুলো আমাদের মনে রাখতে হবে। শনিবার সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের চতুর্থ সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আইন কমিশনের  চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধান বিচারপতি এ বি এম খায়রুল হক সমৃদ্ধ ও শান্তিময় বাংলাদেশ গড়তে ধর্মান্ধতা থেকে বেরিয়ে আসার উপর জোর দিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সকলের জন্য। সকলের কথাই আমাদের শুনতে হবে। সকলে যে যার যার ধর্ম পালন করতে পারে।এমনকি যে ধর্ম মানেও না,  দেশটি তারও। আল্লাহ কিন্তু তাকেও খাওয়াচ্ছেন, পরাচ্ছেন, প্রতিপালন করছেন-  সে কথাগুলো আমাদের মনে রাখতে হবে।

গত কয়েক বছরে বাংলাদেশে বেশ কয়েকজন  লেখক-ব্লগার খুন হয়েছেন, যারা লেখালেখির জন্য ধর্মীয় উগ্রবাদীদের হুমকির মধ্যে ছিলেন। তাদের হত্যার জন্য উগ্রপন্থিদেরই দায়ী করা হচ্ছে। সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হক আইন শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য সব অপরাধীকেই বিচারের আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, শুধু যুদ্ধাপরাধ বলে কথা নয়, যে কোনো অপরাধীরই বিচার হওয়া বাঞ্ছনীয়। আইনের শাসন তা-ই বলে। একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের বিচারের ভার নেওয়া সাবেক সহকর্মীদের কাজে সন্তুষ্টিও প্রকাশ করেন বিচারপতি খায়রুল হক। তাদের কাছে আমাদের এই আশাই ছিল, তারা আশা পূরণ করতে পেরেছেন। তারা এটা আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন, এটাই আমাদের আশা। বিচারের  ক্ষেত্রে আবেগের  চেয়ে তথ্য প্রমাণই বেশি কার্যকর, তাও সবাইকে মনে করিয়ে  দেন বিচারক জীবনে বহু গুরুত্বপূর্ণ মামলার রায় দিয়ে আসা খায়রুল হক।

তিনি বলেন, ইমোশন ছাড়া মানুষ হতে পারে না। কিন্তু আইনে শুধু ইমোশন নয়, তথ্য প্রমাণের যথাযথ উপস্থাপনও জরুরি। স্বপ্নের শোষণমুক্ত সমাজ এখনও প্রতিষ্ঠা না পাওয়ায় মুক্তিযুদ্ধ এখনও চলমান বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধকে ‘জনযুদ্ধ’ আখ্যায়িত করে বিচারপতি খায়রুল হক বলেন, যারা রাইফেল চোখে দেখেনি তারাও যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। কৃষকরা  গেরিলাযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিল। তাদের বীরত্ব  কোনো  জেনারেল, ফিল্ড মার্শালের  চেয়ে কম ছিল না। তারা হয়ত কোনো পদক পাননি, তারা কোনো সেক্টর কমান্ডার ছিলেন না, কিন্তু এটাই তাদের শ্রেষ্ঠ বীরত্ব যে, তারা যখন যুদ্ধে গিয়েছিলেন তারা জানতেন না, সেখান থেকে ফিরে আসবেন কি না।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here