রবিবার রাতে যশোর বিমান বাহিনীর একটি প্রশিক্ষণ বিমান সদর উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের বুকভরা বাওড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে। বিমানটিতে দুইজন পাইলট ছিলেন। রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত তাদের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

যশোর বিমান বন্দরের ব্যবস্থাপক আলমগীর পাঠান বলেন, রবিবার রাত ৯টা ২০ মিনিটে যশোরের মতিউর রহমান বিমান ঘাঁটি থেকে একটি প্রশিক্ষণ বিমান উড্ডয়ন করে। এর কিছুক্ষণ পর সেটি যশোর সদর উপজেলার ফরিদপুর গ্রামের বুকভরা বাওড়ের মধ্যে আছড়ে পড়ে। বিমানটিতে দুইজন পাইলট ছিলেন। এখনও তাদের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

চান্দুটিয়া বাজারের ব্যবসায়ী শ্যামল কুমার সিংহ মোবাইলে ইত্তেফাককে জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে তিনি বাজারে ছিলেন। এ সময় প্রচণ্ড একটি শব্দ শুনে তারা অনেকে আরিচপুর বাজার সংলগ্ন বুকভরা বাওড়ে ছুটে যান। দূর থেকে তারা দেখতে পান একটি বিমানের কিছু অংশ বাওড় পাড় থেকে ২-৩শ মিটার দূরে পানিতে ভাসছে। তাদের অনেকেই নৌকায় করে বিমানটির কাছে গেছেন। কিন্তু কোনো মানুষের সন্ধান তারা পাননি। গোটা এলাকা পেট্রোলজাতীয় জ্বালানির গন্ধে ভরে আছে। প্রচণ্ড বৃষ্টি আর অন্ধকারের কারণে কোনোকিছু ঠিকভাবে দেখাও যাচ্ছে না।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আবুল বাশার মিয়া জানান, যশোর সদর উপজেলার ফরিদপুর গ্রামের বুকভরা বাওড়ের মধ্যে বিমান বাহিনীর একটি প্রশিক্ষণ বিমান পড়ে যাওয়ার খবর তারা পেয়েছেন। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস টিম ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছে।

এদিকে বিমান বাহিনী সূত্র জানিয়েছে, তাদের একটি প্রশিক্ষণ বিমান টাওয়ার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সেই বিমানটির খবর এখনও পাওয়া যায়নি। তবে বিধ্বস্তর ব্যাপারে বিমান বাহিনীর আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন
  • 10
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here