Treeসারাদেশে দীর্ঘ অবরোধে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা ও সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় অবাধে সড়কের দুই পাশে বনবিভাগের গাছ কেটে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করায় বিপুল পরিমাণ বৃক্ষসম্পদের ক্ষতি হয়েছে। সড়ক অবরোধে ব্যবহূত এসব গাছ পরে লুটও হয়েছে বলে স্থানীয়ভাবে বলা হয়েছে।

চৌমুহনী: বেগমগঞ্জ উপজেলায় রাস্তার পাশে গাছ কেটে অবরোধ সৃষ্টি করে। পরে তা লুট হয়ে যায়। এতে বনবিভাগের ব্যাপক ক্ষতি হয়। বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, জামায়াত-শিবিরের ক্যাডাররা বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী-লক্ষ্মীপুর সড়কের বাংলাবাজার থেকে আমিনবাজার চন্দ গঞ্জ পর্যন্ত প্রায় দুইশ গাছ, মাইজদী বাজার থেকে রাজগঞ্জ-ছয়ানি সড়কে প্রায় একশ গাছ কেটে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। পরে গাছগুলো লুট হয়ে যায়। এতে বনবিভাগের প্রায় বিশ লাখ টাকা ক্ষতি হয়। অপরদিকে একই সময় ক্যাডাররা সোনাইমুড়ি উপজেলার লালমাই-লাকসাম সড়ক, সোনাইমুড়ি-চাটখিল সড়ক, বিপুলাশার সীমান্ত হতে সোনাইমুড়ির দক্ষিণ সীমান্ত সড়কসহ মোট ১২টি সড়কে ৬৩০টি গাছ কেটে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। পরে গাছগুলো লুট হয়ে যায়। বেগমগঞ্জ ও সোনাইমুড়ি উপজেলার বন কর্মকর্তা সামসুদ্দিন আহম্মেদ জানান, এই ধংসাত্মক কার্যকলাপে বেগমগঞ্জ থানায় ১৮০ থেকে ২০০ অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসী এবং সোনাইমুড়ি থানায় একই সংখ্যক অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

তালা (সাতক্ষীরা): সাতক্ষীরার তালায় হরতাল আর অবরোধের বলি হচ্ছে সড়কের গাছ। বিভিন্ন সড়কের গাছ কেটে অবরোধের নামে সাবাড় করে দিচ্ছে একটি চক্র। স্থানীয় প্রশাসন গাছ সড়ক থেকে সরিয়ে নিলেও জব্দ করেনি বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছে। গত কয়েকদিনের অবরোধ ও হরতালে তালা উপজেলার বিভিন্ন সড়কের গাছ কেটেছে একটি চক্র। চক্রটি তালা-পাটকেলঘাটা, তালা-কাশিমনগর, মহান্দী-জাতপুর, তালা-শালিখা, জেঠুয়া-মাগুরাসহ উপজেলার বিভিন্ন সড়ক থেকে শত শত গাছ কেটেছে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here