বাবা ন্যায় বিচার পাননি বলে মন্তব্য করেছেন যুদ্ধাপরাধের দায়ে আমৃত্যু কারাদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আব্দুল আলীমের মেঝো ছেলে সাজ্জাদ বিন আলীম। একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ৯টি অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিএনপি নেতা সাবেক মন্ত্রী আব্দুল আলীমকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। বুধবার দুপুরে রায় ঘোষণার পর সাজ্জাদ বিন আলীম এ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেন।
রায় প্রত্যাখ্যান করে সাজ্জাদ বলেন, একাত্তর সালে আমার বাবা জয়পুরহাটে ছিলেন না। তখন মা অসুস্থ ছিলেন। আমরা ছোট ছিলাম। বাবা আমাদের অসুস্থ মায়ের সেবা যত্ন ও আমাদের দেখাশোনা করতেন। সাক্ষীরা আদালতে এসে মিথ্যা ও কাল্পনিক স্বাক্ষ দিয়ে গেছেন। বাবা ন্যায় বিচার পায়নি। আল্লাহ এর বিচার করবে। আপিলের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা আপিল করবো। উচ্চ আদালত থেকে এর সুষ্ঠু সমাধান পাবো বলে আশা করছি।
আলীমের ছোট ছেলে খালেদ বিন আলীম এসময় উপস্থিত ছিলেন। তবে আলীমের বড় ছেলে ফয়সাল বিন আলীম ও বড় মেয়ে নাসরিন সুলতানা রিনা প্রবাসে রয়েছেন।
একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ৯টি অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বুধবার দুপুরে আব্দুল আলীমের বিরুদ্ধে -২ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের ট্রাইব্যুনাল রায় ঘোষণায় করেন। এর মধ্যে একটিতে ১০ বছরের সাজা, ৪টিতে ২০ বছর এবং বাকি ৪ টিতে আমৃত্যু জেলে থাকার কথা বলা হয়েছে। রায়ে বলা হয়েছে, আবদুল আলীমের বিরুদ্ধে আনা হত্যা ও গণহত্যার অভিযোগ প্রমাণীত হয়েছে। তিনি যে অপরাধ করেছেন তাতে তার শাস্তি মৃত্যুদন্ড হওয়া উচিত। কিন্তু বয়স ও শারিরিক অবস্থা বিবেচনা করে তাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।alim_34027

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here