সেনাপ্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক আজ সৌদি আরবের রিয়াদে সশস্ত্র বাহিনী প্রদর্শনী পরিদর্শন করেন।  এ সময় সেনাপ্রধান প্রদর্শনী থেকে অভিজ্ঞতা অর্জনের মাধ্যমে ভবিষ্যতে দুই দেশের সামরিক সহযোগিতা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন।  সৌদি আরবের রিয়াদে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক কোম্পানির অংশগ্রহনের মধ্য দিয়ে সশস্ত্র বাহিনীর প্রদর্শনী শুরু হয়।  সৌদি আরবের সশস্ত্র বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ সেনাপ্রধানকে প্রদর্শনীতে স্বাগত জানান।  এ সময় বাংলাদেশ দূতাবাসে নিযুক্ত ডিফেন্স এট্যাঁসে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহ আলম চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রিয়াদের আন্তর্জাতিক কনভেনশন ও এক্সিবিশন সেন্টারে সৌদি আরবের সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফ জেনারেল আব্দুল রহমান বিন সালেহ আল-বুনায়ন এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।  মেলায় সামরিক সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী বিভিন্ন সৌদি কোম্পানির পাশাপাশি আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাত বিভিন্ন কোম্পানি অংশগ্রহণ করে।  এই প্রদর্শনী সশস্ত্র বাহিনীর বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ প্রয়োজন মেটাতে ব্যক্তিগত খাতের জন্য একটি মাধ্যম হিসেবে কাজ করছে।  স্থানীয় উৎপাদকদের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য তাদের কারখানা, গবেষণাগারের সক্ষমতা বৃদ্ধি করবে এই প্রদর্শনী।

তথ্যসূত্রে জানানো হয়, সমরাস্ত্র উৎপাদনে বিশ্বব্যাপী  মানের দিক দিয়ে সৌদি আরবের সক্ষমতা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

সেনাপ্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ও তাদের কারিগরি প্রযুক্তি ঘুরে দেখেন।  এছাড়া সৌদি সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন প্রযুক্তি ও বাংলাদেশের সাথে বিভিন্ন বিষয়ের সহযোগিতার বিষয় পর্যবেক্ষণ করেন।

প্রয়োজনীয় আন্তর্জাতিক মান এবং গুনগত উৎকর্ষতা বজায় রেখে সৌদি আরবের জাতীয় শিল্পের সহয়তা এবং বিকাশ করা এই প্রদর্শনীর লক্ষ।  সৌদি আরবের ভিশন ২০৩০ অর্জনের লক্ষে আন্তর্জাতিক প্রযুক্তির হস্তান্তর, স্থানীয়করণ এবং সর্বোপরি উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার জন্য সশস্ত্র বাহিনী প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।  প্রদর্শনীতে নাভানশিয়া (Navantia), নরিনকো (Norinco), লকহিড মার্টিন (LockHeed Martin), বোয়িং (Boeing), এএম জেনারেল নর্থরোপ (AM General Northrop), ন্যাভাল (Naval), থেলস (Thales) সহ বিভিন্ন কোম্পানি অংশগ্রহণ করে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here