নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমান বন্দরে ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনায় আহত শাহীন ব্যপারীও মারা গেছেন। আজ সোমবার লাইফ সাপোর্টে নেয়া হলেও শেষ পর্যন্ত বাঁচানো যায়নি তাকে। বিকেলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের চিকিৎসকরা।
 
গত ১৮ মার্চ বিকেলে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে শাহীন ব্যাপারীকে দেশে ফেরত আনা হয়। এরপর থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। গত রবিবার ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে শাহীনের দ্বিতীয় দফা অস্ত্রোপচার হয়েছিল। সোমবার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হলেও শেষ পর্যন্ত বাঁচানো যায়নি।  
 
৪২ বছর বয়সী শাহীন ব্যাপারীর বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে। দেশে তার স্ত্রী কন্যা রয়েছে। তিনি একাই গিয়েছিলেন নেপালে ঘুরতে। গত ১২ মার্চ ইউএস বাংলা এয়ার লাইন্সের বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হন ৪৯ জন তার মধ্যে বাংলাদেশি ২৬ জন। এবার সেই মৃতের সংখ্যা ২৭-এ দাঁড়াল।
 
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here