জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর করার প্রতিবাদে এবং রবিবার হরতালের সমর্থনে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট বাজারে জামায়াত-শিবিরকর্মীদের মিছিল থেকে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় মিছিল থেকে বিভিন্ন অফিসে অগ্নিসংযোগ ও দোকানপাট ভাঙচুরের চেষ্টা করলে পুলিশ গুলি বর্ষণ করে। এতে তিনজন নিহত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এ ঘটনায় ৩ পুলিশসহ ২০ জন আহত হয়েছে। আজ শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার বিকেল ৪টায় স্থানীয় জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের প্রতিবাদ এবং রবিবার হরতালের সমর্থনে মিছিল বের করে জামায়াত-শিবিরকর্মীরা। মিছিলটি একপর্যায়ে বসুরহাট বাজারে এসে দোকানপাট ভাঙচুরসহ স্থানীয় উপজেলা ভূমি অফিস ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় পুলিশ তাদের মিছিলে গুলি চালায়। জামায়াত-শিবিরকর্মীরাও পাল্টা ইটপাটকেল ও গুলি ছোড়ে। এতে তিনজন নিহত ও ৩ পুলিশসহ ২০ জন আহত হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে। খবর পেয়ে নোয়াখালী পুলিশ সুপার ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছেন।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নোয়াখালী পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, খবর পেয়ে তিনি তার অতিরিক্ত ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন। প্রাথমিকভাবে ২-৩ জন নিহত হওয়ার খবর পেয়েছেন তিনি। এ ছাড়াও পুলিশসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here