জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করার অভিযো‌গে ঢাক‌া বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের স্বাধীনতা বিরোধী জামাতপন্থি অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগ। সেই সঙ্গে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগের আহ্বান জানিয়ে ২৪ ঘন্টা সময় বেঁধে দিয়েছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।
 
একটি জামাতি দৈনিকে ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ শিরোনামের একটি প্রবন্ধে অধ্যাপক মোর্শেদ সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জেনারেল জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক হিসেবে মন্তব্য করে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করেন। বিষয়টি সামনে আসার পরপরই তার বিরুদ্ধে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।
 
মঙ্গলবার দুপুরে তারা অধ্যাপক মোর্শেদের বহিস্কারের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিন থেকে বিক্ষোভ মিছিল সহকারে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে গিয়ে অবস্থান নেন। সেখানে তারা ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন, তার কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। 
 
 
এ বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেন, জাতির পিতাকে নিয়ে মিথ্যাচার ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতির দায়ে অধ্যাপক মোর্শেদের সর্বোচ্চ শাস্তি ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবিলম্বে বহিষ্কার চাই। তিনি যদি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ না করেন তবে কাল (বুধবার) বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি জমা দেবে ছাত্রলীগ।
 
এদিকে অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খান মঙ্গলবার তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, নয়া দিগন্ত পত্রিকায় প্রকাশিত প্রবন্ধ ‘জ্যোর্তিময় জিয়া’ যদি কাউকে ব্যথিত করে থাকে, আমাকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।
শেয়ার করুন
  • 14
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here