জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক দলের (জাসাস) কেন্দ্রীয় সহসভাপতি সিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) দিনাজপুর শহর থেকে অর্থ আত্মসাতের মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ সূত্র জানায়, সিরাজুল ইসলাম সার আমদানিকারক ফ্রেন্ডস ট্রেডার্সের পরিচালক। ফ্রেন্ডস ট্রেডার্সের চট্টগ্রামের গুদামের ৩৪ কোটি সাত লাখ ছয় হাজার মূল্যমানের টিএসপি সার বিক্রির টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত ৬ জুন তাঁর রিরুদ্ধে ঢাকার পল্টন থানায় মামলা হয়। এ মামলায় তিনি গ্রেপ্তার হলেও পরে জামিনে মুক্ত হন। মামলাটি তদন্ত করছে (সিআইডি)।

মামলার বাদী ফেন্ডস ট্রেডার্সের অর্থ বিভাগের প্রধান মাহবুবুর রহমান বলেন, সিরাজুল ইসলাম প্রতিষ্ঠানকে তিন মাসের মধ্যে টাকা দেওয়ার অঙ্গীকার করলেও তা মানেননি। এরপর তার বিরুদ্ধে গত ৬ জুন দণ্ডবিধির ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় মামলা করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক আশরাফুজ্জামান আজ শনিবার প্রথম আলো ডটকমকে বলেন, আদালতে হাজিরা না দেওয়ায় সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়। এর ভিত্তিতেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং পরে ঢাকার সিআইডির কার্যালয়ে আনা হয়। চট্টগ্রামে তাঁর যৌথ ব্যবসা রয়েছে। ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বের জের ধরে তার বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা আছে।

বগুড়া অফিসের নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, জয়পুরহাট-২ আসনে তিনি সংসদ নিবাচনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিন বছর ধরে কালাই, ক্ষেতলাল ও আক্কেলপুর এলাকাবাসীকে আগাম ঈদ শুভেচ্ছা বার্তার নামে পোস্টার সেঁটে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। ১০ বছর আগে এলাকায় বেকার হিসেবে ঘোরাফেরা করতেন। তিন বছর আগে এলাকায় ফিরে তিনি শিল্পপতি বলে পরিচয় দিচ্ছেন। সবার মাঝে টাকা বিলাচ্ছেন।
logo-jn1

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here