image_88686পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক। আজ মঙ্গলবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বরাবর অব্যাহতিপত্র জমা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে জাফর ইকবাল ও ইয়াসমিন হকের পদত্যাগপত্র গ্রহণ না করতে এবং সমন্বিত ভর্তি কার্যক্রম বহাল রাখার দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে শিক্ষার্থীরা। পদত্যাগের ব্যাপারে শাবি উপাচার্য ড. আমিনুল হক ভুইয়া সন্ধ্যা সাতটার দিকে জানিয়েছেন, তিনি বিষয়টি শুনেছেন— তবে তখন পর্যন্ত তার হতে পদত্যাগপত্র পৌঁছায়নি।

জানা গেছে, এ বছর শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু এর বিরোধীতা করে ভর্তি পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানান স্থানীয় আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। তারা উপাচার্যের সাথে দেখা করে সমন্বিত ভর্তি কার্যক্রম বাতিলের দাবি জানান।

এই দাবির প্রেক্ষিতে আজ শাবির একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে শাবি ও যশোর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি কার্যক্রম বাতিল করা হয়। ড. জাফর ইকবাল সমন্বিত ভর্তি কার্যক্রমের টেকনিক্যাল বিভাগের প্রধান ছিলেন। দুপুরে সমন্বিত ভর্তি কার্যক্রম বাতিলের পর বিকালে ড. জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী ড. ইয়াসমিন হক রেজিস্টারের কাছে তাদের পদত্যাগ পত্র জমা দেন।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here