জনতার নিউজঃ নাছির দ্রুবতারা

 নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সংখ্যালঘুর বাড়িতে সন্ত্রাসী কর্তৃক গুলি ছোঁড়ার ঘটনায় পুলিশি অভিযানে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গ্রেফতার হয়েছে। উদ্ধার হয়েছে হামলার ঘটনায় ব্যবহৃত অস্ত্র। সোমবার গভীর রাতে উপজেলার চরপার্বতী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড থেকে পুলিশি অভিযানে এ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানা যায়, ১০ জুন রাতে স্থানীয় বসন্ত মাষ্টার বাড়ির সুকেশ মজুমদারের ঘরে সন্ত্রাসী ঢুকে চাঁদা চেয়ে না পেয়ে হামলা করে এবং ঘর লক্ষ্য করে ১ রাউন্ড গুলি করে। এ ঘটনায় সুকেশ মজুমদারের স্ত্রী বকুল রানী মজুমদার বাদী হয়ে হুমায়ুন কবির সোহেল ও বাহাদুরসহ ৪ জনকে আসামী করে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলার সূত্র ধরে পুলিশ প্রথমে হুমায়ুন কবির পলাশকে গ্রেফতার করে। পরবর্তীতে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী সোমবার গভীর রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নাজির আলম ও উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) সুমন বড়ুয়ার নেতৃত্বে চরপার্বতী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের নূরু চেয়ারম্যানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সন্ত্রাসী বাহাদুর (৩৫) কে গ্রেফতার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বাহাদুর সংখ্যালঘু বাড়িতে ব্যবহৃত অস্ত্রটি তার দোকান ঘরে রাখা আছে জানালে পুলিশ তার দোকান ঘর থেকে দেশীয় তৈরী একটি এক নলা বন্দুক উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় এসআই সুমন বড়ুয়া বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে। এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ ফজলে রাব্বী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং বলেন বিধি অনুযায়ী তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here