suronjit senguptaনির্বাচনকালীন সরকার গঠনে বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে একটি বিশেষ সংসদীয় কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেছেন দপ্তরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। তিনি বলেছেন, এই কমিটি নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক বা অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করবে।
আজ সোমবার জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত বক্তব্যে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত এই প্রস্তাব করেন। তিনি খালেদা জিয়ার উদ্দেশে বলেন, ‘আপনি সংসদে আসুন। আপনার নেতৃত্বে একটি বিশেষ কমিটি করে নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক বা অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করা হবে।’
সাবেক এই রেলমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধীদলীয় নেতাকে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন। কিন্তু তিনি তা রক্ষা করেননি। শেখ হাসিনা তাঁর কাছে সর্বদলীয় সরকারে মন্ত্রীর নাম চেয়েছেন। কিন্তু তিনি তা করছেন না। মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সমাধানের কাছাকাছি চলে এসেছি। আলোচনার মাধ্যমে আসুন সমাধান করি।’
সুরঞ্জিত বলেন, বিরোধীদলীয় নেতার আশপাশে কিছু বিকৃত রুচির রাজনীতিবিদ আছেন। তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোন আলাপে বিরোধীদলীয় নেতার বক্তব্যের প্রশংসা করে তাঁকে আপসহীন নেত্রী বলেছেন। তিনি বলেন, ‘সকালে দেখা হলেও গুড মনিং, দুপুরেও গুড মর্নিং, বিকেলেও গুড মর্নিং। উনি এমনই আপসহীন। একবার যা বলে ফেলেছেন, কেবল তাই বলে চলছেন।’

অনির্ধারিত বক্তব্যে সরকারদলীয় সাংসদ তোফায়েল আহমদ বিরোধী দলের হরতালের সমালোচনা করেন।

ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, বুদ্ধিজীবী হত্যাকারী মুঈনুদ্দীন ও আশরাফ বিদেশে আছেন। এঁদের ফিরিয়ে আনতে ওই দেশগুলো টালবাহানা করবে। তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে এঁদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করার জন্য আহ্বান জানান।

জাসদের সাংসদ মঈন উদ্দিন খান নাম উল্লেখ না করে হেফাজতে ইসলামের নেতাদের সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘হুজুর, আপনারা ধর্ম নিয়ে যে অপব্যাখ্যা দিচ্ছেন তাতে এটা বলতে পারি, আপনারা আমার আগে নরকে যাবেন, আমার পরে না, ইনশাআল্লাহ!’

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here