ধর্ষণের মতো একটি সামাজিক ব্যাধি নিয়ে সম্প্রতি একটি টকশোয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা ও খল অভিনেতা মিশা সওদাগরের তামাশা নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অভিনেত্রী মৌসুমী।

তার স্বামীর ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করা একটি স্ট্যাটাসে তিনি তার প্রতিক্রিয়া জানান। ওই স্ট্যাটাসটি তিনি অন্য সেলিব্রেটিদেরও ট্যাগ করেছেন। এতে তিনি স্পর্শকাতর বিষয়টি নিয়ে যা হয়েছে তার জন্য সংশ্লিষ্টদের ক্ষমা চাইতে বলেন।

যুগান্তরের পাঠকদের জন্য মৌসুমীর স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হল-

প্রিয় দর্শক, আজ একজন অভিনেত্রী হয়ে নয়, একজন নারী হিসেবে আপনাদের কিছু কথা বলতে চাই। আপনারা জানেন কয়েক দিন আগে একটি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেলের একটি অনুষ্ঠানে ‘ধর্ষণ’ নিয়ে ঠাট্টা করা হয়েছিল।

বিষয়টি হাসি-তামাশা করার নয়। সঞ্চালিকা যেভাবে প্রশ্ন করলেন অতিথিকে আর তিনি যেভাবে উত্তর দিলেন তাতে মনে হল- আমরা যেন বোকার স্বর্গে বাস করছি।

পরবর্তীতে ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেল এবং বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার হতে শুরু করল। পুরো বিষয়টি একজন নারী হিসেবে মেনে নেয়া ছিল পীড়াদায়ক।

আমরা চলচ্চিত্রে নানান রকম অভিনয় করে দর্শককে বার্তা দিয়ে থাকি। যাতে ভালোমন্দ দুটোই থাকে- শেষে জয় হয় ভালোর; পরাজয় ঘটে মন্দের।

সেসব ইতিবাচক বার্তা তুলে না ধরে সমাজের নেতিবাচক দিকগুলো টকশোতে এনে শুধু একজন বা দুজনকে নয় পুরো নারী জাতিকে অপমান করা হয়েছে।

শুধু আমার নয়, অনেকের ভক্ত, দর্শক বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। সবাই যার যার অবস্থান থেকে প্রতিবাদ জানিয়েছে। আমি তাদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে, তাদের সঙ্গে সুর মিলিয়ে এমন বক্তব্যের নিন্দা জানাচ্ছি।

আমি প্রত্যাশা করব, এ অনুষ্ঠানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই ভবিষ্যতে কোনো একটি পর্বে এ ধরনের আচরণের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেবেন। -আপনাদেরই প্রিয় মৌসুমী।

চিত্রনায়িকা পূর্ণিমাকে নিয়ে ফেসবুকে চলছে তুমুল আলোচনা। কেউ কেউ করছেন তুমুল সমালোচনাও। কারণ মিশাকে জিজ্ঞেস করেছেন ‘ধর্ষণ দৃশ্যের শুটিংয়ে কোন নায়িকাকে আপনার পছন্দ’?

‘ধর্ষণ দৃশ্যের শুটিংয়ে কোন নায়িকাকে আপনার পছন্দ’

 

প্রশ্নটি করা হয় ‌’এবং পূর্ণিমা’ নামের একটি সেলিব্রিটি শো’তে।

এতে উপস্থাপিকা পূর্ণিমার প্রশ্ন, কার সাথে ধর্ষণ দৃশ্যে অভিনয় করতে বেশী স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন আপনি?

প্রশ্নের উত্তরে মিশা সওদাগর জানান, ‘মৌসুমী ও পূর্ণিমার সাথে’ উপস্থাপিকা পূর্ণিমা হা হা হা করে হেসে ওঠেন।

অনুষ্ঠানের এই প্রশ্নটি নিয়েই চলছে আলোচনা সমালোচনা।

পূর্ণিমা বলছেন, প্রশ্নের পীঠে এমন প্রশ্নটি মূলত মজা করেই করা হয়েছে। কিন্তু ফেসবুকবাসী তো এটি মানতে নারাজ। তারা সমালোচনায় নেমেছেন আমাকে নিয়ে।

ওই অনুষ্ঠানে মিশা সওদাগরের নানা অজানা বিষয়ও উঠে এসেছে।

খলনায়ক হওয়ার পর কী কী সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন সেটিও জানিয়েছেন তিনি।

কোন তারকার সঙ্গে তার ভালো বন্ধুত্ব এবং চলচ্চিত্রের আজকের দিনে চিত্রনায়ক মান্না জীবিত থাকলে চলচ্চিত্র এমন অবস্থানে এসে দাঁড়াত না বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

আরটিভিতে প্রচারিত হওয়া এ অনুষ্ঠানটি এখন ফেসবুকে ভাইরাল। সপ্তাহের প্রতি রোববার প্রচার হয় অনুষ্ঠানটি।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here